World Bank Cuts India's Growth Rate: ভারতের আর্থিক বৃদ্ধির হার কমে দাঁড়াবে ৬ শতাংশে, পূর্বাভাস বিশ্ব ব্যাঙ্কের
বিশ্ব ব্যাঙ্ক (Photo Credit: PTI)

ওয়াশিংটন, ১৩ অক্টোবর: দেশের অর্থনীতি নিয়ে আশার কথা শোনাল না বিশ্ব ব্যাঙ্ক (World Bank)। রবিবার তারা জানিয়েছে, ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে ( financial year) ভারতের আর্থিক বৃদ্ধির (growth rate) হার ৬ শতাংশে নেমে যাবে। গত অর্থবছরে এই হার ছিল ৬.৯ শতাংশ। রবিবার দক্ষিণ এশিয়া ইকোনমিক ফোকাসের সর্বশেষ রিপোর্টে বিশ্ব ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে দেশের আর্থিক বৃদ্ধি হবে ৬ শতাংশ। তবে ২০২১ অর্থবর্ষে তা ধীরে ধীরে বেড়ে দাঁড়াবে ৬.৯ শতাংশে এবং ২০২২ সালে দাঁড়াবে তা ৭.২ শতাংশে।

আন্তর্জাতিক অর্থ ভাণ্ডারের (International Monetary Fund) সঙ্গে বিশ্ব ব্যাঙ্কের বার্ষিক বৈঠকের আগে প্রকাশিত এই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে এনিয়ে পর পর দু'বছরে ভারতের অর্থনৈতিক বৃদ্ধি হ্রাস পেয়েছে। ২০১৭-১৮ সালে আর্থিক বৃদ্ধির হার ছিল ৭.২ শতাংশ। ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষে তা কমে দাঁড়ায় ৬.৮ শতাংশে। বিশ্ব ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, উৎপাদন ও নির্মাণ শিল্পে (manufacturing and construction activities) গতির কারণেই বৃদ্ধি হার বেড়ে ৬.৯ শতাংশ হয়েছিল। এছাড়া কৃষি ও পরিষেবা সেক্টরে (agriculture and the services sector) বৃদ্ধি যথাক্রমে ২.৯ এবং ৫.৭ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৯-২০২০ সালের প্রথম প্রান্তিকে অর্থনীতি উল্লেখযোগ্য এবং বিস্তৃত মন্দায় পড়েছে। শিল্পি ও পরিষেবা খাত দুর্বল হয়ে পড়া ও চাহিদা কম যাওয়াতেই এই মন্দা। আরও পড়ুন: UP: বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ৪ বছর ধরে সহবাস, চাপে পড়ে মহিলাকে বিয়ে করলেন SDM

নীচের প্রবণতা অর্থনৈতিক গতিকে লক্ষ্য করেই RBI রোপো রেপো (Repo rate) কমিয়েছে। কারণ সার্বিক মুদ্রাস্ফিতীর হার রয়েছে ৩.৪ শতাংশে। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে RBI রেপো রেট ১৩৫ বেসিস পয়েন্ট কমিয়েছে মুদ্রানীতি সহজ করতে। বিশ্ব ব্যাঙ্কের প্রতিবেদনে আরও উল্লেখ করা হয়েছে যে বাণিজ্যে ভারসাম্য বিঘ্নিন্ত হওয়ার কারণে ভারতের কারেন্ট অ্যাকাউ্নট ডেফিসিটের (current account deficit) পরিমাণ গত বছরের ১.৮ শতাংশ থেকে বেড়ে এবছর ২.১ শতাংশ হয়েছে।