Hijab Row: 'পরিস্থিতির উপর নজর রাখা হচ্ছে, সময় মতো হস্তক্ষেপ করা হবে', হিজাব বিতর্কে সুপ্রিম কোর্ট
Hijab Row In Karnataka (Photo Credit: ANI/Twitter)

দিল্লি, ১১ ফেব্রুয়ারি:  কর্ণাটকে (Karnataka) হিজাব (Hijab Row) বিতর্ক নিয়ে তোলপাড় গোটা দেশ। হিজাব মামলার নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত কর্ণাটকে স্কুল, কলেজ খোলা যাবে। কিন্তু, সেখানে কাউকে জোর করে ধর্মীয় পোশাক পরে যেতে বাধ্য করা যাবে না। কর্ণাটক হাইকোর্টের তরফে এমনই অন্তর্রবতী নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বৃহস্পতিবার। কর্ণাটক হাইকোর্টের ওই নির্দেশের পর হিজাব মামলার শুনানি বাতিল করে দিল সুপ্রিম কোর্ট। কর্ণাটক হাইকোর্ট যখন আগামী সোমবার ফের এই মামলার শুনানির নির্দেশ দেয়, সেই সময় সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court) তরফে জরুরি ভিত্তিতে এই মামলার শুনানি বাতিল করে দেওয়া হয়। গোটা দেশে হিজাব বিতর্ক ছড়িয়ে দেওয়া যাবে না। হিজাব মামলার শুনানি বাতিল করে এমনই জানানো হয় দেশের শীর্ষ আদালতের তরফে।

সুপ্রিম কোর্টের তরফে জানানো হয়, গোটা বিষয়টির উপর নজর রাখা হচ্ছে। কর্ণাটকের হিজাব মামলাকে দিল্লিতে টেনে আনার কোনও প্রয়োজন নেই। শুধু তাই নয়, নজর রাখা হচ্ছে, প্রয়োজন পড়লে বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করা হবে বলেও জানানো হয়েছে সুপ্রিম কোর্টের তরফে। অর্থাৎ কর্ণাটকের হিজাব মামলাকে জাতীয় স্তরে টেনে আনার কোনও প্রয়োজন নেই বলে স্পষ্ট জানানো হয় সুপ্রিম কোর্টের তরফে।

আরও পড়ুন:  Pakistani Fishing Boats: গুজরাটে লুকিয়ে পাকিস্তানি? বিএসএফ, বায়ুসেনার যৌথ তল্লাশিতে আটক ১০টি পাক নৌকা

কর্ণাটকের উদুপির পি ইউ কলেজে (College) হিজাব বিতর্ক নিয়ে গোটা দেশ জুড়ে শোরগোল শুরু হয়ে যায়। হিজাব পরে কলেজে প্রবেশ করলে, তার পরিবর্তে গেরুয়া উত্তরীয় পরেও অনেকে হাজির হতে শুরু করেন। যা নিয়ে জোর বিতর্ক শুরু হয়ে যায়। বিষয়টি যাতে ছড়িয়ে পড়তে না পারে, তার জন্য কর্ণাটক জুড়ে ৩ দিন স্কুল, কলেজসহ সমস্ত শিক্ষাঙ্গন বন্ধ থাকবে বলে নির্দেশ দেয় বাসবরাজ বোম্মাইয়ের সরকার।