IND vs SA, CWC 2023: ইডেনে অলৌকিক জয় ভারতের, জন্মদিনে বিরাটের সেঞ্চুরির পর প্রোটিয়াদের ৮৩ রানে অল আউট করে আটে আট টিম ইন্ডিয়ার

একেবারে অবিশ্বাস্য পারফরম্যান্স ভারতের। রবিবাসরীয় ইডেন গার্ডেন্সে ২৪৩ রানের একেবারে অলৌকিক জয় টিম ইন্ডিয়ার। জন্মদিনে বিরাট কোহলির নজির গড়া সেঞ্চুরিতে ভর করে ৩২৬ রান তোলার পর দক্ষিণ আফ্রিকাকে মাত্র ৮৩ রানে অল আউট করে দিলেন ভারতের বোলাররা। মাত্র ২৭.১ ওভারে শেষ হয়ে গেল বাভুমাদের ইনিংস। টানা আটটা ম্যাচ জিতে রোহিত শর্মারা বিশ্বকাপ জয়ের ব্যাপারে এখন আর শুধু হট ফেভারিট নন, এখান থেকে টিম ইন্ডিয়া বিশ্বকাপ না জিতলে সেটাই হবে সবচেয়ে বড় অঘটন। শ্রীলঙ্কাকে ওয়াংখেড়তে ৫৫ রানে অল আউট করার পর সামি-বুমরারা এবার ইডেনে প্রোটিয়াদের অল আউট করলেন ৮৩ রানে।

যে দক্ষিণ চলতি বিশ্বকাপে একবার ৪০০ প্লাস, একবার ৩৯৯ সহ পাঁচবার সাড়ে তিনশো রান করেছে, তারাই ভারতের সামনে এসে মাত্র ৮৩ রানে ধরাশায়ী হয়ে গেল। ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে দলের বোলারদের এত ধরাবাহিক ভাল পারফরম্যান্স আগে কখনও দেখা যায়নি। মহম্মদ সামির নেতৃত্বে রবীন্দ্র জাদেজারা ইডেনে ফুল ফোটালেন। জাদেজা ৩৩ রানে ৫ উইকেট নিলেন, সামি নিলেন রাসে ভান দার দুসেন ও আইদেন মার্করামের মত ২টি গুরত্বপূর্ণ উইকেট।

রোহিত-বিরাট যুগলবন্দির জয়

জয়ের জন্য ৩২৬ রান তাড়া করতে নেমে ৪০ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে একেবারে চাপে পড়ে গিয়েছিল। চলতি বিশ্বকাপে চারটে সেঞ্চুরি করে নজির গড়া প্রোটিয়া ওপেনার কুইন্টন ডি'কক (৫)-কে বোল্ড করে দক্ষিণ আফ্রিকাকে প্রথম ধাক্কাটা দিয়েছিলেন মহম্মদ সিরাজ। আর লুঙ্গিকে বোল্ড করে কুলদীপ যাদব দক্ষিণ আফ্রিকার অল আউট হওয়ার বৃত্ত শেষ করলেন। মাঝে আগুন ঝরলানে সামি, আর ঘূর্ণির ম্যাজিক দেখালেন জাদেজা। প্রোটিয়াদের পুরো ইনিংসে শুধু ভারতীয় বোলারদের দাপট, আর বাভুমাদের আত্মসমর্পণ। দেখে মনে হল, আন্তর্জাতিক দলের সঙ্গে কোনও ক্লাব দলের খেলা। আসলে এই ভারতীয় দলের বোলিং এমন একটা জায়গায় নিয়ে গিয়েছেন কোচ রাহুল দ্রাবিড়, যাতে চলতি বিশ্বকাপের বাকি ৯টি দলকে অনেকটা সহজ প্রতিপক্ষ দেখাচ্ছে ভারতের কাছে।

চলতি বিশ্বকাপে ভারতের বিরুদ্ধে শ্রীলঙ্কা ৫৫ রানে অল আউট হয়েছে। ইংল্যান্ড গুঁটিয়ে গিয়েছে ১২৯ রানে। পাকিস্তান ধরাশায়ী হয় ১৯১ রানে। অস্ট্রেলিয়াকে প্রথম ম্যাচে ১৯৯ রানে অল আউট করেন বুমররা। ভারতীয় বোলিংয়ের সামনে সব দল ধরাশায়ী হচ্ছে। ব্যাটিংটাও বেশ ভাল হচ্ছে। তাই এখান থেকে রোহিতরা অপরাজিত বিশ্বচ্যাম্পিয়ন না হলে সেটাই হবে বড় অঘটন। আর বাকি থাকল তিনটি ম্যাচ। লিগের শেষ ম্যাচে নেদারল্যান্ডস আর সেমিফাইনাল, ফাইনাল। তিনটে ম্যাচ জিতে ওয়ানডে বিশ্বকাপে তিনবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হবে ভারত। এমন স্বপ্নটা এখন বড্ড বেশী বাস্তব দেখাচ্ছে।