MobiKwik: ডার্ক ওয়েবে ৩৫ লক্ষ ব্যবহারকারীর তথ্য ফাঁস, কাঠগড়ায় ডিজিটাল অর্থ লেনদেন অ্যাপ MobiKwik
MobiKwik

তথ্য ফাঁসের অভিযোগে কাঠগড়ায় ডিজিটাল অর্থ লেনদেনের অ্যাপ MobiKwik। ৩৫ লক্ষ ব্যবহারকারীর তথ্য ফাঁস হয়েছে বলে খবর। ব্যবহারকারীদের ঠিকানা, ফোন নম্বর, আধার কার্ডের তথ্য, কেওয়াইসি-র ৮.২ টেরাবাইট তথ্য ফাঁস হয়েছে ডার্ক ওয়েবে। ডার্ক ওয়েবে ব্যবহারকারীর তথ্য বিক্রি করছে MobiKwik এমনই অভিযোগ ওঠে সংস্থার বিরুদ্ধে। যদিও সংস্থা এ বিষয়ে কোনও স্বীকারোক্তি করেনি।

গত ফেব্রুয়ারিতেই সাইবার সুরক্ষা বিশেষজ্ঞ রাজশেখর রাজাহরিয়া সংস্থার বিরুদ্ধে এই গুরুতর অভিযোগ আনেন। তিনি ১১ কোটি ভারতীয়ের তথ্য বিপন্ন বলে অভিযোগ এনে টুইটও করেন। তখনও এই অভিযোগ উড়িয়ে দেয় সংস্থা। এরপর সোমবার থেকে অনলাইনে একটি ডার্ক ওয়েবের লিঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। যেখান থেকে ব্যবহারকারীরা নিজেদের তথ্য ফাঁস হয়েছে বলে নিশ্চিত হন। আরও পড়ুন, শেষবেলার প্রচারে নন্দীগ্রামে মমতা, ঝড় তুলতে আসছেন শাহ

নেটিজেনরা নিজেদের তথ্যের স্ক্রিনশট নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টও করেন। MobiKwik-র বিরুদ্ধে ব্যবহারকারীর তথ্য বিক্রি করার অভিযোগ আনেন তাঁরা। ১.৫ বিটকয়েন বা প্রায় ৮৬,০০০ মার্কিন ডলারের বদলে বিক্রির বিজ্ঞাপনা দেওয়া হয়েছিল। ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় ৬২ লক্ষ টাকা।

যদিও সংস্থার দাবি, একজন স্বঘোষিত সিকিউরিটি রিসার্চার বারবার এধরণের ফাইল বানাচ্ছেন আর সংস্থার বদনাম করার চেষ্টা করছেন।