CCS Approves Tejas Procurement Deal: তেজস মার্ক ১এ মডেলের ৮৩ টি যুদ্ধবিমান কেনায় অনুমোদন কেন্দ্রীয় সরকারের
LAC Tejas Aircraft (Photo Credit: PTI/File)

নতুন দিল্লি, ১৩ জানুয়ারি: তেজস মার্ক ১এ (Tejas Mark 1A) মডেলের ৮৩ টি যুদ্ধবিমান কেনায় অনুমোদন দিল সুরক্ষা সম্পর্কিত কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা বা ক্যাবিনেট কমিটি অন সিকিউরিটি (Cabinet Committee on Security)। আজ এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। ৮৩টি যুদ্ধবিমান কিনতে ৪৮ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হবে কেন্দ্রীয় সরকারের। লাইট কমব্যাট এয়ারক্রাফ্ট তেজসের উন্নত সংস্করণ এই মডেল। আগামী মাসে চুক্তি চূড়ান্ত হবে বলে মনে করা হচ্ছে। চুক্তি হওয়ার তিন বছর পর প্রথম মার্ক ১এ বিমানটি হাতে পাবে বায়ুসেনা। তেজস যুদ্ধবিমান তৈরি করেছে হিন্দুস্থান অ্যারোনটিক্স লিমিটেট বা হ্যাল। এর আগে এই সংস্থার তৈরি তেজস মার্ক ১ যুদ্ধবিমান হাতে পেয়েছে বায়ুসেনা।

গত বছর মার্চে প্রতিরক্ষা অধিগ্রহণ কাউন্সিল ৮৩টি তেজস মার্ক ১এ সংস্করণ কেনায় ছাড়পত্র দেয়। তারপর সবটাই ছিল প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন ক্যাবিনেট কমিটি অন সিকিউরিটির হাতে। দ্বারা ড্যাকের সিদ্ধান্তকে অনুমোদন দেওয়া দরকার। আজকের সিদ্ধান্ত প্রতিরক্ষা উৎপাদনে আত্মনির্ভরতার পথে ভারত আরও এগিয়ে গেল বলে জানিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। তিনি লিখেছেন, এলসিএ-তেজস আগামী কয়েক বছরে আইএএফ-র মেরুদণ্ড হয়ে উঠবে। এলসিএ-তেজসে প্রচুর পরিমাণে নতুন প্রযুক্তি যুক্ত করা হয়েছে যার অনেকগুলিই আগে ভারতে কখনও চেষ্টা করা হয়নি। আরও পড়ুন: Sangeet Som's Controversial Statements যে সকল মুসলিমদের দেশের বিজ্ঞানীদের প্রতি আস্থা নেই তারা পাকিস্তানে যেতে পারে: বিজেপি নেতা সংগীত সোম

তেজসের প্রাথমিক সংস্করণটির তুলনায় এই মডেলে ৪৩টি পরিবর্তন ও উন্নয়ন করা হয়েছে। অন্যান্য উন্নতিগুলির মধ্যে সবেয়ে বড় উন্নতি হ'ল অপারেটিং সক্ষমতা বাড়ানো। এর মধ্যে রয়েছে সহজ রক্ষণাবেক্ষণ, সক্রিয় বৈদ্যুতিন স্ক্যান অ্যারে রাডার, বৈদ্যুতিন যুদ্ধের স্যুট এবং বিয়ন্ড ভিজ্যুয়াল রেঞ্জ মিসাইল বহনের ক্ষমতা, যার অন্তর্ভুক্ত থাকবে এয়ার টু এয়ার মিসাইল অস্ত্র মার্ক ১। এটি দীর্ঘ পরিসরের জন্য মিসাইল বহন করার ক্ষমতাও পাবে।