Coronavirus Testing: কেবল মাত্র সরকারি নয়, রেজিস্টারড চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন হলেই করা যাবে করোনা টেস্ট
Plasma Therapy in India for Coronavirus (Photo Credits: PTI)

নতুন দিল্লি, ২ জুলাই: করোনাভাইরাস (Coronavirus) পরীক্ষার নিয়ম বদল করল কেন্দ্রীয় সরকার (Government of India)। কেবলমাত্র সরকারি চিকিৎসকেরই প্রেসক্রিপশন নয় এখন থেকে বেসরকারি ক্ষেত্রে কোনও রেজিস্টারড চিকিৎসকের (registered practitioner) প্রেসক্রিপশন থাকলেই করোনা টেস্ট করা যাবে। কেন্দ্র-আইসিএমআর এই নতুন নির্দেশিকা পাঠিয়েছে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে। কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, এর ফলে দেশে করোনা পরীক্ষার সংখ্যা এক কোটি ছুঁয়ে যাবে খুব শিগগির। সরকার কর্তৃক সমস্ত বাধা অপসারণের কারণেই এটি সম্ভব হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ দেশে করোনা পরীক্ষা পথ সুগম করেছে।

বুধবার সারাদিনে দেশে নতুন করে করোনা আক্রান্ত (COVID-19 Cases) হলেন ১৯ হাজার ১৪৮ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪৩৪ জনের। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তথ্য বলছে, ভারতে এখন মোট করোনা আক্রান্ত ৬ লক্ষ ৪ হাজার ৬৪১ জন। এই মুহূর্তে সংক্রমণের শিকার ২ লক্ষ ২৬ হাজার ৯৪৭ জন। সুস্থতার হার বাড়ায়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৩ লক্ষ ৫৯ হাজার ৮৬০ জন। মৃত্যু মিছিলে শামিল ১৭ হাজার ৮৩৪ জন। মহামারী করোনায় দেশের মধ্যে সবথেকে বিধ্বস্ত রাজ্য মহারাষ্ট্র। সেখানে মোটকরোনা আক্রান্ত এখন ১ লক্ষ ৮০ হাজার ২৯৮ জন। মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজার ৫৩ জনের। আরও পড়ুন: Coronavirus Cases in India: একদিনে আক্রান্ত ১৯ হাজার ১৪৮, ভারতে কোভিড রোগীর সংখ্যা ৬ লক্ষ ছাড়ালো

দেশের মধ্যে দ্বিতীয় করোনা বিধ্বস্ত রাজ্য তামিলনাড়ু। সেখানে মোট কোভিড রোগীর সংখ্যা ৯৪ হাজার ৪৯। আক্রান্তের নিরিখে তৃতীয়স্থানে রয়েছে রাজধানী। সেখানে মোট করোনা আক্রান্ত রোগী ৯০ হাজার। বুধবার মহারাষ্ট্র একদিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা রেকর্ড গড়েছে। সবমিলিয়ে এক লক্ষ ৮০ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। ওয়ার্ল্ডো মিটারের পরিসংখ্যান বলছে বিশ্বের মধ্যে করোনা আক্রান্ত দেশের তালিকার চতুর্থ স্থানে রয়েছে ভারত। তৃতীয় স্থানে রাশিয়া। ২৭ লক্ষ ৭৯ হাজার ৯৫৩ জন আক্রান্তকে নিয়ে তালিকার শীর্ষ স্থানে রয়েছে আমেরিকা। জনহপকিন্স ইউনিভার্সিটির রিপোর্ট অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় মার্কিন মুলুকে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৫২ হাজার।