West Bengal Lockdown: বাড়ল সময়সীমা, ৩১ মার্চ পর্যন্ত লকডাউন রাজ্য
মমতা ব্যানার্জি (Photo Credits: IANS)

কলকাতা, ২৪ মার্চ: লকডাউনের (Lockdown in West Bengal) সময়সীমা বাড়াল রাজ্য সরকার। শুধু কলকাতা এবং পুর এলাকাগুলিই নয়। শহর-শহরতলী-সহ গোটা রাজ্যেই ৩১ মার্চ পর্যন্ত জারি হল লকডাউন। আজ অর্থাৎ মঙ্গলবার বিকেল ৫টা থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত এই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। মঙ্গলবার নতুন করে আরও দুই আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে পশ্চিমবঙ্গে। কোনওভাবেই যাতে করোনাভাইরাসের (Coronavirus Outbreak) সংক্রমণ স্টেজ ২ থেকে ৩-র পথে না এগোয় সেজন্য নেওয়া হচ্ছে কড়া পদক্ষেপ। ইতিমধ্যেই রাজ্যের মোট ২৩টি পুর এলাকায় লকডাউন রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজ্য সরকার। কিন্তু এবার গোটা বাংলায় জারি হল লকডাউন।

লকডাউনের সময় অপ্রয়োজনে যদি কেউ রাস্তাঘাটে বেরোন। তাহলে তাদের বিরুদ্ধে নেওয়া হবে কড়া পদক্ষেপ। এরমধ্যেই ২৫০-র বেশিজনকে গ্রেফতার করেছে কলকাতা পুলিশ (Kolkata Police)। সোমবার প্রতিটি রাজ্যের মুখ্যসচিবদের সঙ্গে বৈঠক করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। সেই বৈঠকের পরই নেওয়া হয়েছে এই সিদ্ধান্ত। আরও পড়ুন: Nirmala Sitharaman: IT রিটার্নের সময়সীমা বাড়ল, আধার-প্যান কার্ড লিঙ্ক করানোরও সময় বাড়াল অর্থমন্ত্রক 

গত রবিবার জনতা-কার্ফুর শেষ-লগ্নে কেন্দ্র প্রতিটি রাজ্যের কাছে লকডাউনের আর্জি জানায়। এরপরই রাজ্যের মোট ২৩টি পুর এলাকায় লকডাউন রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজ্য সরকার । সরকারের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি পেশ করা হয় তারপরই। বিজ্ঞপ্তিতে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, এই নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে রাস্তাঘাটে চলবে না কোনও ট্যাক্সি, অটো। যদিও হাসপাতাল, বিমানবন্দর, রেলস্টেশন, বাসস্ট্যান্ড/ টার্মিনাল এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস সরবরাহের যানবাহনে কোনও বিধিনিষেধ জারি করা হয়নি। নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস ছাড়া সমস্ত দোকান, গুদামঘর বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রকাশ্যে ৭ জনের বেশি জমায়েতের উপর জারি হয়েছে নিষেধাজ্ঞা। এই মুহূর্তে যারা বিদেশ থেকে ফিরছেন তাদেরকে স্থানীয় স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশ অনুযায়ী হোম কোয়ারিন্টাইনে থাকতে হবে। টেলিকম, ইন্টারনেট, আইটি পরিষেবা, ব্যাঙ্ক, এটিএম, পেট্রোল পাম্প, এলপিডি গ্যাস, ওষুধের দোকান, চশমার দোকান-এসব কিছুকে লকডাউন আওতার বাইরে রাখা হয়েছে।