Samsung Apologises: চেয়ারম্যান লি স্যাং হুনকে ১৮ মাসের কারাদণ্ড দিতেই ক্ষমা চাইল স্যামসাং
ক্ষমা চাইল স্যামসাং (Photo Credits: PTI )

সিওল, ১৮ ডিসেম্বর: শ্রমআইন ভঙ্গ করার অপরাধে দক্ষিণ কোরিয়ার (South Korea) বহুজাতিক সংস্থা স্যামসাংয়ের বোর্ড অফ চেয়ারম্যান লি স্যাং হুনকে (Lee Sang hoon) শাস্তি শুনিয়েছে সে দেশের আদালত। তাঁকে ১৮ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ার এক আদালতে এমন সাজা হয়েছে স্যামসাং কর্তার। এই নিয়ে ভুলের মাপ চেয়ে বুধবার ক্ষমা চাইল সংস্থা।

শ্রমিকদের ইউনিয়ন করতে না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল লি স্যাং-হুনের বিরুদ্ধে। স্যামসাং ইলেক্ট্রনিক্স মেরামত ইউনিট, স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স সার্ভিসের সাব কন্ট্রাক্ট শ্রমিকরা চেয়ারম্যান লি-এর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। যে মামালায় জড়ানো হয় আরও ২৫ জনের নাম। এরই প্রেক্ষিতে গতকাল মঙ্গলবার রায় দিয়েছে আদালত (Court)। সেই রায়ে দীর্ঘ ১৮ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে স্যামসাং কর্তার। বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের খবর অনুযায়ী, ২০১৩ সালে স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স সার্ভিসে কাজ করা কর্মীরা একটি ইউনিয়ন করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু, সংস্থার প্রধান কর্তারা তাতে বাধা দেন। শ্রমিকদের অন্তত অভিযোগ ছিল এমনটাই। আরও পড়ুন: Brahmos: ব্রহ্মোস সুপারসোনিক ক্রুজ মিসাইলের উৎক্ষেপণ সফল, জানাল ভারত সরকার

ওই দেশের একটি স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী বিচারক এই প্রসঙ্গে বলেছেন, লি দাবি করেছেন অনেক অঞ্চল রয়েছে সে সম্পর্কে তিনি বেশি জানেন না। পেরিফেরিয়াল অঞ্চলগুলি সম্পর্কে তিনি সচেতন (Aware) ছিলেন না বলেই তিনি এমন করেছেন।