IISF Inaugurate By Narendra Modi: কলকাতায় নয়, দিল্লিতে বসেই ভারতীয় আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান উৎসবের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি
ভারতীয় আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান উৎসবের লোগো এবং নরেন্দ্র মোদি (Photo Credits: File Image)

নতুন দিল্লি, ৫ নভেম্বর: উদ্বোধন হয়ে গেল ৫ম বর্ষ ভারতীয় আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান উৎসবের (India International Science Festival)। কলকাতায় (Kolkata) নয়, দিল্লিতে (Delhi) বসেই ভারতীয় আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান উৎসবের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)। মঙ্গলবার বিকেল ৪ টের সময় ভিডিও কনফারেন্সের (Video Conferance) মাধ্যমে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। খবর ছিল, দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নেওয়ার পর এই প্রথম কলকাতায় আসবেন তিনি। কিন্তু এদিন দিল্লিতে বসেই ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কলকাতার অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন তিনি।

ভারতীয় আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান উৎসব উপলক্ষে রাজারহাটের বিশ্ববাংলা কনভেনশন সেন্টারে উপস্থিত থাকার কথা ছিল তাঁর। চলতি বছরে পাঁচে পা দিল আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান উৎসব। এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতদের তালিকায় ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিও (CM Mamata Banerjee)। এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হর্ষ বর্ধন। কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রক এবং বিজনা ভারতী (বিভা) দ্বারা যৌথভাবে প্রত্যেক বছর আয়োজিত হয়ে আসছে এই অনুষ্ঠান। যার উদ্দেশ্য মানুষের মধ্যে বিজ্ঞান মনস্কতা জাগ্রত করা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে ভারতের অবদানকে বিকাশ করা। সর্বোপরি মানুষকে উৎসাহিত করা। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির অন্তর্ভুক্তিমূলক অগ্রগতির জন্য কৌশল তৈরি করাও এই অনুষ্ঠানের মূল লক্ষ্য। নিজের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে টুইট করে এমন তথ্যই জানিয়েছেন এদিন প্রধানমন্ত্রী। কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের পাশাপাশি ডিআরডিও, ইসরো, ইন্ডিয়ান অ্যাসোসিয়েশন ফর কাল্টিভেশন অফ সায়েন্স, বোস ইনস্টিটিউট, ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ কেমিক্যাল বায়োলজি উৎসবে অংশগ্রহণ করছে। বিশ্ববাংলা কনভেনশন সেন্টার, সায়েন্স সিটি, সত্যজিৎ রায় ফিল্ম ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট, বোস ইনস্টিটিউট ও ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ কেমিক্যাল বায়োলজিতে উৎসবের বিভিন্ন প্রদর্শন হবে। আরও পড়ুন: Chinese Garlic: বিষাক্ত চিনা রসুনের বিক্রি রমরমিয়ে, বাড়িতে নিয়ে আসার আগে চিনুন এগুলি

মঙ্গলবার ৫ নভেম্বর থেকে শুরু হয়ে এই অনুষ্ঠান চলবে আগামী ৮ নভেম্বর পর্যন্ত। এ বছরের থিম ‘‌রাইজেন’‌ ইন্ডিয়া অর্থাৎ ‘‌রিসার্চ, ইনোভেশন এবং সায়েন্স এমপাওয়ারিং দ্য নেশন’‌।‌ এগ্রিকালচারাল সায়েন্টিস্ট মিট, হেল্‌থ রিসার্চ কনক্লেভ, ন্যাশনাল সায়েন্স টিচার্স কংগ্রেস, ইন্টারন্যাশনাল সায়েন্স ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল সহ ৩০টি অনুষ্ঠান ও বিভিন্ন প্রযুক্তির প্রদর্শনী (Exhibition) হবে উৎসবে। এবারই প্রথম বিশেষভাবে সক্ষমদের স্বাভাবিক চলাফেরার সুবিধায় কৃত্রিম অঙ্গের আধুনিক প্রযুক্তি, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, রোবোটিক্স ও ভার্চুয়াল রিয়েলিটির ওপর প্রদর্শনী হবে বলে জানা গিয়েছে।