Gudi Padwa 2024: কেন পালিত হয় গুড়ি পাড়োয়া? জেনে নিন কবে গুড়ি পাড়োয়া এবং এই উৎসবের গুরুত্ব...

মারাঠি এবং কোঙ্কানি সম্প্রদায়ের একটি গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় উৎসব হল গুড়ি পাড়োয়া। মহারাষ্ট্র এবং গোয়ায় পালিত হয় এই উৎসব। হিন্দু ক্যালেন্ডার অনুসারে, নতুন বছরের প্রথম দিন হিসেবে পালন করা হয় গুড়ি পাড়োয়া উৎসব। এই দিন থেকে শুরু হয় হিন্দু নববর্ষ। চৈত্র শুক্লপক্ষের প্রতিপদ তিথিতে পালিত হয় এই উৎসব। মহারাষ্ট্রে এই উৎসব উপলক্ষে, বাড়িতে ও উঠোনে রঙিন পুতুল ও রঙিন পতাকা রাখে এবং একটি লাঠির উপরে পিতলের হাঁড়ি রেখে পুজো করা হয়।

২০২৪ সালে গুড়ি পাড়োয়া পালন করা হবে ৯ এপ্রিল, মঙ্গলবার। এই উৎসবের দিন শুরু হবে হিন্দু নববর্ষের ২০৮১ সাল। চৈত্র প্রতিপদ শুরু হবে ৮ এপ্রিল রাত ১১:৫০ মিনিটে এবং শেষ হবে ৯ এপ্রিল রাত ০৮:৩০ মিনিটে। উদয় তিথি অনুসারে, ৯ এপ্রিল পালিত হবে গুড়ি পাড়োয়া উৎসব। এই দিনেই শ্রী রামের বনবাসের অবসান ঘটে এবং অযোধ্যায় ফেরার উৎসব হয়।

গুড়ি পাড়োয়ার সকালে স্নান করে ঘর পরিষ্কার করা হয়। এদিন বাড়ির প্রধান প্রবেশদ্বারে রঙ্গোলি এবং আমের পাতা দিয়ে তোরণ দেওয়া হয়। গুড়ি পাড়োয়া উৎসব উপলক্ষে সবাই নতুন পোশাক পরে এদিন। বাড়ির এক অংশে, তথা বারান্দা বা উঠোনে গুড়ি রেখে আমের পাতা, ফুল ও রঙিন কাপড় দিয়ে সাজানো হয়। এরপর ব্রহ্মার পুজো করে গুড়ি উত্তোলন করে ভগবান বিষ্ণুর পুজো করা হয়। এদিন সবাই একে অপরকে নববর্ষের শুভেচ্ছা জানায়। কেউ বাড়িতে এলে তাকে বরণ করে পুরান পোলি ও মিষ্টি ভাত দিয়ে খাওয়ানো হয় এদিন। এভাবেই ধুমধাম করে আনন্দের সঙ্গে পালন করা হয় এই উৎসব।