Coronavirus Outbreak: বাড়িতেই থাকুন নিয়ম ভাঙলে জেলে যেতে হবে, মারণ ভাইরাস প্রতিরোধে কড়া ভূমিকায় ওয়াশিংটন
করোনাভাইরাস(Photo by Kenzo TRIBOUILLARD / AFP)

ওয়াশিংটন, ৩১ মার্চ: করোনাভাইরাসের গ্রাসে বিপর্যস্ত মার্কিন মুলুক। লকডাউনেও সংক্রমণ ঠেকানো যাচ্ছে না। সোমবার রাজধানী ওয়াশিংটন (Washington) প্রশাসনের তরফে সেখানকার বাসিন্দাদের জন্য এক বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। তাতে স্পষ্ট বলা হয়েছে, কেউ বাইরে বেরোবেন না, বাড়িতে থাকুন। অত্যাবশ্যকীয় পণ্য কিনতেই একমাত্র বাড়ির বাইরে বেরোতে পারেন। বা কোনও জরুরি পরিস্থিতিতে। যদি কেউ ইচ্ছাকৃতভাবে আইন ভাঙেন তাঁকে ৫ হাজার মার্কিন লার জরিমানা দিতে হবে, সঙ্গে ৯০ দিনের জেল হেফাজত। ওয়াশিংটনে পজিটিভ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৪০০, মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের। এদিকে রাজধানীর করোনা আক্রান্তের সংখ্যা তালমিলিয়ে বেড়েই চলেছে। দেশের অবস্থাও ভাল নয়।

এই পরিস্থিতিতে সংক্রমণ রুখতে বিবৃতি দিলেন কলম্বিয়ার মেয়র মিউরেল বাউজার। তিনি সমস্ত বাসিন্দাদের বাড়িতে থাকতে অনুরোধ করেছেন। একান্ত প্রয়োজন না পড়লে কেউ যেন বাড়ির বাইরে না যান। মেরিল্যান্ড ও ভার্জিনিয়ার গভর্নরও মিউরেল বাউজারের বিবৃতির সঙ্গে সহমত পোষণ করেছেন। তাঁদের মতে, একমাত্র বাড়িতে থেকেই বাসিন্দারা প্রশাসনের সঙ্গে সহযোগিতা করতে পারেন। এই মারণ ভাইরাসের সঙ্গে মোকাবিলা করতে পারেন। আর যাঁরা স্বেচ্ছাসেবকের ভূমিকা নেবেন তাঁদের বিষয়টি আলাদা। নিজেরা পরিবার নিয়ে সুস্থ থাকুন, এলাকার মানুষজনকে সংক্রমণ থেকে দূরে থাকুন। কোভিড-১৯ কে প্রতিহত করুন। আরও পড়ুন-COVID-19 Linked to Cardiac Injury: ঝুঁকির মুখে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর হৃদযন্ত্র, কেন জানেন?

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের রিপোর্ট বলছে, “মার্কিন মুলকে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা এক লক্ষ ৫০ হাজার। ইতিমধ্যেই মারণ বাইরাসের কবলে পড়ে ২ হাজার ৮২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়্ন্ত্রণে রাখতে সমস্ত শহরে হোটেল রেস্তরাঁ, এবং জরুরি পরিষেবার মধ্যে পড়ে না এমন দোকানপাট বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে অনেক আগেই। ৫০ জনের জটলা কঠোরভাবে নিষিদ্ধ হয়েছে।”