World Bank's Loan To Bengal Govt: সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচিগুলি চালাতে বাংলাকে ১০০০ কোটির ঋণ বিশ্ব ব্যাঙ্কের
Chief Minister Mamata Banerjee (Photo Credits: Twitter)

কলকাতা, ২২ জানুয়ারি: পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) চালু করা সামাজিক কল্যাণ প্রকল্পগুলির (Social Welfare Schemes) উল্লেখযোগ্য স্বীকৃতি। সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পগুলি আগামীদিনে চালাতে বাংলার জন্য ১০০০ কোটি টাকার ঋণ (Loan) অনুমোদন করল বিশ্ব ব্যাঙ্ক (World Bank)। আগেই ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল যে বিশ্ব ব্যাঙ্ক মহিলা ক্ষমতায়ন এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচিতে ব্যয়ের জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে ঋণ দিতে চায়। বিশ্ব ব্যাঙ্কের এই ঋণ রাজ্য সরকার কর্তৃক চালু করা 'কন্যাশ্রী', 'রূপশ্রী', 'লক্ষ্মীর ভাণ্ডার', 'স্বাস্থ্য সাথী', 'বিধবা ভাতা' এবং 'বার্ধক্য ভাতা'-র মতো কল্যাণমূলক প্রকল্পগুলি চালাতে সহায়ক হবে।

শনিবার এক বিবৃতিতে রাজ্য সরকার ঘোষণা করেছে যে ১৯ জানুয়ারি বিশ্ব ব্যাঙ্ক রাজ্য সরকারের এই প্রচেষ্টার স্বীকৃতিস্বরূপ পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে ১২৫ মিলিয়ন ডলার (প্রায় ১ হাজার কোটি টাকা) ঋণ মঞ্জুর করেছে। যা দরিদ্র এবং দুর্বল গোষ্ঠীগুলির জন্য সামাজিক সুরক্ষা পরিষেবাগুলিতে সহায়ক হবে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সমাজের দুর্বল অংশের সমস্যা চিহ্নিত করা এবং সেই সমস্য়াগুলির প্রতিকারের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আন্তরিক প্রচেষ্টা বিশাল কাজ দিয়েছে। রাজ্য সরকারের দাবি, বিধবা ভাতা, বার্ধক্য ভাতা, কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, স্বাস্থ্যসাথী বা হালে লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের মতো প্রকল্পগুলি মহিলাদের ক্ষমতায়নের পথে সহায়ক প্রকল্প। আরও পড়ুন: Republic Day Parade 2022: ২৫টি ট্যাবলো, সেনার ১৬টি মার্চিং রেজিমেন্ট, আর কী কী থাকছে প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে?

বিশ্ব ব্যাঙ্কের বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে পশ্চিমবঙ্গ সরকার ৪০০টিরও বেশি প্রকল্প চালায়। যা মহিলা, বয়স্ক, আদিবাসীদের মতো দুর্বল গোষ্ঠীর জন্য গুরুত্বপূর্ণ। 'দুয়ারে সরকার' কর্মসূচির মাধ্যমে দ্রুত নাগরিকদের দোরগোড়ায় পরিষেবা দেওয়া হচ্ছে। বিশ্বব্যাঙ্কের সহায়তায় সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পগুলি গতি পাবে।