Durga Puja 2019:  রিয়েলটেকের রিয়েল পুজোয় এবার দুগ্গা দর্শনে বৃদ্ধাশ্রমের বাসিন্দারা
রিয়েলটেক নির্মাণ আয়োজিত পুজো পরিক্রমা (Photo Credits: Wikimedia Commons and Realtec Nirman)

বাপের বাড়ি আসছে উমা একটি বছর পরে,  শারদীয়া দুর্গোৎসব শুরু হয়ে গিয়েছে। আজ তৃতীয়া। আর শুধু দুটো দিনের অপেক্ষা তারপর ঢাকে পড়বে কাঠি। বাঙালি পুজো শপিং শেষ করে সেজেগুজে বেড়োবে প্যান্ডেল হপিংয়ে। মা, বাবা, পরিবার, আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব মিলে পালিত হবে প্রিয় উৎসব দুর্গাপুজো। মহালয়ার আগে থেকেই উদ্বোধন হয়ে গেছে বহু পুজো প্যান্ডেলের। দুদিন পর রাস্তায় নামবে মানুষের ঢল। কিন্তু তাদের পুজো যারা পুরোনো আসবাব হয়ে শহর কিংবা শহরতলির কোনো এক কোণে থাকা বৃদ্ধাশ্রমে (Oldage home) পড়ে রয়েছেন? কিংবা তাঁরা যাদের সন্তানদের অফিসের কাজের চাপে অবহেলিত হয়ে পড়েন। সেই মা- বাবাদের কি পুজো হয় না?

এসমস্ত ভাবনা থেকেই রিয়েলটেক নির্মাণ (Realtec Nirman)  বৃদ্ধ- বৃদ্ধাদের নিয়ে মহাপঞ্চমীর শুভ তিথিতে দুর্গাপুজা পরিক্রমার আয়োজন করেছে। শিশির গুপ্ত ও এসকে নাসিরের উদ্যোগে আয়োজিত হয়েছে গোটা বিষয়টি। উত্তর থেকে দক্ষিণের ১৫- ২০ টি পুজো প্যান্ডেলে তাঁদের নিয়ে যাওয়া হবে। আমহার্টস্ট্রিট থেকে শুরু হবে পরিক্রমা। এর মধ্যে থাকবে মানিকতলা, চালতাবাগান, কাশী বোস লেন, মুদিয়ালী, একডালিয়া প্রভৃতি)। গত দশ বছর ধরে তাঁরা এই পরিক্রমার আয়োজন করেন। পরিবহনের জন্য থাকছে এসি ভলভো বাস।আরও পড়ুন, জ্যান্ত দুর্গার হাতে চক্ষুদান প্রতিমা দুর্গার; নর্থ ত্রিধারার থিম স্টিয়ারিং হাতে দুর্গা

বৃদ্ধ- বৃদ্ধাদের নিয়ে দুর্গাপুজা পরিক্রমা

রিয়েলটেক রিয়েলপুজো ছাড়া রিয়েলটেক পরিবারের উৎসব সম্পূর্ণ হয় না। শুধু তাই নয় পূজোপরিক্রমার পাশাপাশি থাকবে খাওয়াদাওয়ার ব্যবস্থা। রিয়েলটেক নির্মাণের ম্যানেজিং ডিরেক্টর শিশির গুপ্ত জানান,'সারাজীবন যারা নিজেদের স্বার্থ ত্যাগ করে সন্তানদের লালন পালন করেন আমাদের উচিত তাদের বৃদ্ধাবস্থায় ভালবেসে পাশে থাকা। আমরা প্রতিবছর একটা দিন এই পুজো পরিক্রমার আয়োজন করি। যাতে মা আসার খুশি তাঁদের জীবন থেকে হারিয়ে না যায়।'