Valmiki Jayanti 2022: সঠিক মানুষ হওয়ার জন্য রামায়ণ পড়ুন, পরামর্শ ভাগবতের

কানপুর: বন্ধুত্ব বা সখ্যতা (Affinity) কাকে বলে তা শিখতে গেলে বাল্মিকী রামায়ণ (Valmiki Ramayan) পড়তে হবে বলেই মনে করেন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (Rashtriya Swayamsevak Sangh) প্রধান মোহন ভাগবত (Mohan Bhagwat)। যথার্থ মানুষ হয়ে ওঠার জন্য মহর্ষি বাল্মিকী রচিত রামায়ণ পড়া উচিত বলেই মন্তব্য করেন তিনি।

রবিবার উত্তরপ্রদেশের কানপুরে একটি জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে উপস্থিত সবাইকে বাল্মিকী জয়ন্তীর (Valmiki Jayanti) শুভেচ্ছা জানান মোহন ভাগবত। বলেন, "যদি আপনি অন্তরঙ্গতা কাকে বলে তা শিখতে চান, তাহলে বাল্মিকী রামায়ণ পড়ুন। যেখানে ভগবান রামের (Lord Ram) চরিত্রকে বর্ণনা করা হয়েছে। যাঁরা ভালো মানুষ হয়ে উঠতে চান তাঁদের জন্য এই সময়টা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও গর্বের।"

এরপরই 'যদি হও সুজন, তাহলে তেঁতুলপাতায় ন'জন' বাংলার বিখ্যাত এই প্রবাদটি উল্লেখ করে তিনি বলেন, "যদি কারও মধ্যে এই ধরনের সখ্যতা থাকে তাহলে তাঁরা একটি তেঁতুলপাতার উপরেও একত্রিত হয়ে বসতে পারেন।"

প্রতিবছর ৯ অক্টোবর পালিত হয় মহর্ষি বাল্মিকীর ( Maharishi Valmiki) জন্মদিন। ভগবান রামের জীবিত অবস্থায় আসল রামায়ণ (original Ramayana) লেখার কৃতিত্ব তাঁকেই দেওয়া হয়। আজ মহান ওই মানুষটির জন্মদিনে সবাইকে অভিনন্দন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Prime Minister Narendra Modi) টুইট করেন, দেশবাসীকে জানাই বাল্মিকী জয়ন্তীর শুভেচ্ছা। উত্তরপ্রদেশ সরকারের (Uttar Pradesh government) তরফেও গত ৭ তারিখ বাল্মিকী জয়ন্তী উপলক্ষ্যে রাজ্যজুড়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠান করার কথা ঘোষণা করা হয়। এই উপলক্ষ্যে রাজ্যের সমস্ত ভগবান রাম, হনুমান ও বাল্মিকী মন্দিরে আলো দান করা হয়েছে সরকারের তরফে।

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যসচিব মুকেশ কুমার মেশরাম (Mukesh Kumar Meshram) সমস্ত ডিভিশনাল কমিশনার ও জেলাশাসকদের রাজ্যজুড়ে বেশ বড় আকারে বাল্মিকী জয়ন্তী পালনের নির্দেশ দেন। প্রতিটি জায়গায় ৮, ১২ ও ২৪ ঘণ্টা ধরে রামায়ণ পাঠের পাশাপাশি প্রদীপ জ্বালিয়ে রাখার ব্যবস্থা করার কথা বলেন।