Russia:  মহামারীর মধ্যেই রক্তচোষা এঁটুলির কামড়ে দিশেহারা রাশিয়া, হু হু করে বাড়ছে এনসেফেলাইটিস
এঁটুলির প্রতীকী ছবি (Photo Credits; Pixabay)

নোভোসিবিয়াস্ক, ২ জুন: একে মহামারী করোনাভাইরাসে রক্ষে নেই, তায়  নতুন বিপদে দিশেহারা রাশিয়া। সাইবেরিয়া থেকে পাওয়া খবর বলছে সেখানকার বিস্ততৃত এলাকা ভরেছে বিষাক্ত রক্তচোষা এঁটুলিতে (blood-sucking tick)। সাইবেরিয়ার একটি এলাকায় এঁটুলির এমন আনাগোনায় মানুষ ভয় পেয়েছে। কেননা সেখানকার হাসপাতাল গুলিতে এই রক্ত চোষা এঁটুলির কামড়ে আক্রান্ত মানুষকে বাঁচানোর জন্য প্রয়োজনীয় ওষুধ ও ভ্যাকসিন নেই।

শোনা যাচ্ছে রাশিয়াতে এঁটুলির আক্রমণ নতুন কিছু ন। তবে যখনই তার প্রভাব বাড়ে তখনই মৃতের সংখ্যাও বাড়তে থাকে হুড়মুড়িয়ে। এই এঁটুলির কামড়ে সেদেশে এনসেফেলাইটিসের মতো এক রোগ হয়। যার জের এর আগে ২০১৫-তেই প্রায় দেড় লক্ষ লোকের প্রাণ গিয়েছিল। ডেলি মেলের রিপোর্ট বলছে স্থানীয় ক্রাসনয়ের্স্ক এলাকায় ইতিমধ্যেই এই এঁটুলির কামড়ে ৮ হাজার ২১৫ জন গুরুতর অসুস্থ। যার মধ্যে ২ হাজার ১২৫ জন শিশু রয়েছে। জানা গিয়েছে এই রক্তচোষ্টা এঁটুলির কামড়েই এনসেফেলাইটিসে আক্রান্ত হচ্ছে। এই অসুস্থতার জেরে বরাবরের মতো ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে মস্তিষ্ক। আরও পড়ুন-Avifavir : রাশিয়ায় প্রস্তুত করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন অ্যাভিফ্যাভির, ১১ জুন থেকে শুরু পরীক্ষামূলক প্রয়োগ

রাশিয়ার বিস্তীর্ণ এলাকায় দুই ধরনের রক্তচোষা এঁটুলিতে ছেয়েছে। বিভিন্ন জায়গা থেকে একেরপর এক দুঃসংবাদ আসছে। যেমন স্ভেয়ার্ডলস্ক এলাকার এঁটুলির কামড়ে অসুস্থ প্রায় ১৭ হাজার ২৪২ জন। যার মধ্যে শিশুই রয়েছে ৪ হাজার ৩৩৪ জন। ঘাসের মধ্যে প্রায় লুকিয়ে থাকা এই এঁটুলি রক্তের সন্ধানে একেবারে হাঁ করে রয়েছে, মানুষ পেলেই পুরো ছেঁকে ধরছে। বিশেষজ্ঞদের মতামত, রাশিয়াতে বর্তমানে শীত তেমন নেই, আর এই অল্প শীতেই এঁটুলিদের এমন রমরমা বাজার শুরু হয়েছে।