SFI, DYFI Rally: নবান্ন অভিযান ঘিরে পুলিশ- বাম আন্দোলনকারীদের ধুন্ধুমার মল্লিক ফটকে, চলল কাঁদানে গ্যাস, জলকামান
নবান্ন অভিযান ঘিরে পুলিশ- বাম আন্দোলনকারীদের ধুন্ধুমার (Photo Credits: ANI)

কলকাতা, ১৩ সেপ্টেম্বর: Police and Left Agitators Clashes on Nabanna Rally: বাম যুব ছাত্রদের নবান্ন অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার পুলিশ ও আন্দোলনকারীদের। এখনও মল্লিক ফটকে আটকে মিছিল। নবান্নের মুখে পৌঁছানোর আগে ব্যারিকেড। সকালে বঙ্কিম সেতু থেকে বঙ্গবাসী মোড়ে  এসএফআই (SFI) ও ডিওয়াইএফআই (DYFI) -এর ডাকে এই মিছিল পৌঁছেছিল। হাওড়া রেল মিউজিয়াম (Howrah Rail Museum) থেকে নবান্নমুখী (Nabanna) মিছিল। প্রথমে মল্লিক ফটকের কাছে ছিল মিছিল, সেখানে ব্যারিকেড ভাঙতে না পেরে বঙ্কিম সেতুর দিকে মিছিল ঘুরে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে লাঠিচার্জ করে, কাঁদানে গ্যাস ছোড়া হয়। বাধে ধস্তাধস্তি, হয় ইটবৃষ্টিও।

ইতিমধ্যে আহত হয় কয়েকজন। তারপর তারা ফের মল্লিক ফটকের (Mallik Fotok) দিকে এগিয়ে আসে। সেখানে জলকামানেরও ব্যবহার করা হয়। এরপরও আন্দোলনকারীরা 'ইনকিলাব জিন্দাবাদ' স্লোগান দিয়ে এগিয়ে যায়। মিছিল ছত্রভঙ্গ হয়ে পড়ায় গলির ভিতরে ঢুকে যায়। আক্রান্ত হয় সংবাদ মাধ্যম। জখম হন কয়েকজন সংবাদমাধ্যমের কর্মী। মাথা ফাটে পুলিশ অফিসারের। বামকর্মী সায়নদীপ মিত্র আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। জখমকারীদের উদ্ধার করতে আসে অ্যাম্বুলেন্স। ঘটনাস্থলে ছোড়া হয় বোমাও। আন্দোলনকারীদের অভিযোগ তৃণমূল ক্যাডাররা মিছিলে  ইট. পাথর, বোমা ছুঁড়ছে।

ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে সেখানে। প্রচুর পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। শিল্প সংস্থান, কর্ম সংস্থানের মত নানা বিষয়ের দাবিতে কাল সিঙ্গুর থেকে এই অভিযান শুরু করে ডিওয়াইএফআই ও এসএফআইয়ের যৌথ মিছিল। বাম ছাত্র যুব নেতৃত্বের অভিযোগ, সরকারি ও বেসরকারি- উভয় ক্ষেত্রে কর্মসংস্থান কমেছে রাজ্যে। বন্ধ হয়ে যাচ্ছে একের পর এক সরকারি ক্ষেত্র। কেন্দ্রীয় নীতি এর জন্যে দায়ী হলেও, রাজ্য সরকারও নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছে।

গতকাল এসএফআই ও ডিওয়াইএফআই-এর ডাকে সিঙ্গুর থেকে এই মিছিলে ভিড় হয়েছিল চোখে পড়ার মতো। বৃষ্টি ভেজা হয়েও লাল পতাকার ওই ভিড় পায়ে পায়ে এগিয়েছে সিঙ্গুর থেকে ডানকুনি।