বিধায়ক সব্যসাচী দত্তকে বিজেপিতে স্বাগত জানালেন অমিত শাহ, জানেন বিধানসভায় বিজেপি-র শক্তি বেড়ে এখন কত হল
এভাবেই সব্যসাচী দত্তকে জড়িয়ে ধরে বিজেপিতে স্বাগত জানালেন অমিত শাহ। (Photo Credits: ANI)

কলকাতা, ১ অক্টোবর: বিজেপিতে যোগ দিয়ে তাঁর পুরনো দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন বিধাননগরের প্রাক্তন মেয়র  তথা বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত (Sabaysachi Dutta)। " বিজেপিতে যোগ দিয়েই অমিত শাহের পা ছুঁয়ে প্রণাম করেন সব্যসাচী। এরপর সব্যসাচীকে ধরে ফেলে বুকে টেনে নেন অমিত শাহ। এরপরই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে উত্তরীয় পরে বরণ করে নেন সব্যসাচী। অমিত শাহকে উদ্দেশ্য করে সব্যসাচী বললেন, " বাংলাকে ধীরে ধীরে পাকিস্তান বানানোর চেষ্টা চলছে। বাংলার পাকিস্তান হওয়া থেকে আপনি বাঁচান।

সব্যসাচীর যোগদানে রাজ্য বিধানসভায় বিজেপির বিধায়ক সংখ্যা ১৫-তে গিয়ে দাঁড়াল। ক দিন পর হতে চলা তিন আসনে উপনির্বাচনে আরও শক্তিবৃদ্ধি হতে পারে বিজেপির। নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে বিজেপির সভায় অমিত শাহ-র উপস্থিতিতে পদ্ম শিবিরে যোগ দিলেন সব্যসাচী। যে সব্যসাচী একটা সময় ছিলেন দিদির স্নেহধন্য, তিনিই এবার মুকুল রায়ের মাধ্যমে বিজেপিতে যোগ দিয়ে ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে মমতা ব্যানার্জিকে হারানোর শপথ নিলেন।

কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চ্যাটার্জির পর এবার বিধাননগরের প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্তকেও দলে নিয়ে শক্তি বাড়ল বিজেপি। 'হচ্ছে হবে'-টা দীর্ঘদিন ধরেই চলছিল, অবশেষে আজ আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দিলেন বিধাননগরের প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্ত। আরও পড়ুন-উত্তরপ্রদেশে এনআরসি? বাংলাদেশি তাড়াতে চিহ্নিতকরণের কাজ শুরু করল যোগীর রাজ্যের পুলিশ

অগাস্টে কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চ্যাটার্জি যেদিন নয়া দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতরে নরেন্দ্র মোদি শিবিরে যোগদান করেছিলেন, সেদিনই জল্পনা ছিল সব্যসাচীও ফুল বদল করবেন। কিন্তু সেই সময় দলবদল না করে, পুজো চলাকালীন বিজেপিতে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দিলেন সব্যসাচী।

রাজ্য বিধানসভায় বিজেপি-র শক্তি-

২০১৬ বিধানসভা নির্বাচনে জয়ী

১) মনোজ টিগ্গা (মাদারিহাট)

২) স্বাধীন সরকার (বৈষ্ণবনগর)

২০১৯ বিধানসভা উপনির্বাচনে জয়ী

৩) পবন সিং (ভাটপাড়া), ৪) নিরাজ তামাং জিম্বা (দার্জিলিং), ৫) জোয়েল মুর্মু (হাবিবপুর), ৬) আশীষ বিশ্বাস (কৃষ্ণগঞ্জ)

যোগ দিলেন:

৭. দুলাল চন্দ্র বর (বাগদা) - কংগ্রেস থেকে, ৮. শুভ্রাংশু রায় (বীজপুর) - তৃণমূল থেকে, ৯. তুষার ভট্টাচার্য (বিষ্ঞুপুর) - কংগ্রেস, ১০. দেবেন্দ্র রায় (হেমতাবাদ) - সিপিআইএম, ১১. সুনীল সিং (নোয়াপাড়া) - তৃণমূল, ১২. বিশ্বজিৎ দাস (বনগাঁ উত্তর) - তৃণমূল, ১৩. উইলসন চম্পামারি (কালচিনি) - তৃণমূল, ১৪. শোভন চ্যাটার্জি (বেহালা পূর্ব) - তৃণমূল, ১৫. সব্যসাচী দত্ত (বিধাননগর) - তৃণমূল

আসন্ন উপনির্বাচন

১) খড়গপুর সদর, ২) কালিয়াগঞ্জ, ৩) করিমপুর

লোকসভা নির্বাচনের আগে থেকেই সব্যসাচীর বিজেপিতে যোগদানের জোর জল্পনা চলছিল। বিদ্যুৎভবন অভিযানে বিদ্যুৎকর্মীদের বিক্ষোভে থেকে তৃণমূলের সঙ্গে বড় ব্যবধান তৈরি হয় সব্যসাচীর। মুকুল রায়ের সঙ্গে 'লুচি-আলুরদম'বৈঠকের পরই পরিষ্কার হয়ে গিয়েছিল সব্যসাচীর দলবদল শুধুই সময়ের অপেক্ষা।