ইউজারদের তথ্য গোপন রাখতে ফেসবুকে থাকছে না এই ফিচার
প্রতীকী ছবি(Photo Credit: Pixabay)

আপনি স্বর্ণ যুগের এই বলিউড নায়কের মতো দেখতে বা আপনি চার্মিং মডেল মিলিন্দ সুমনের (Milind Soman)মতো দেখতে। এরকম হাজারো খেলার সুযোগ নিয়ে ফেসবুক প্রতিদিন আপনার ভার্চুয়াল ফাইন ডাইনিং সাজিয়ে দেয়। একদিন দেখলেন আপনার কলিগ কাম বন্ধু তেমনই একটি খেলায় অংশ নিয়েছেন। খেলার নিয়মানুসারে বেশকিছু ক্যুইজের উত্তরও তাঁকে দিতে হয়েছে। শেষে দেখা গিয়েছে আপনার কলিগের পার্সোনালিটি ম্যাচ করে বলিউড ডিভা দীপিকা পাড়ুকোণের(Deepika Padukone) সঙ্গে। এটা দেখেই হিংসেয় লাল হয়ে গিয়েছেন,তাহলে আপনাকে কার মতো দেখতে জানতে হবে। আপনিও ক্যুইজের উত্তর দিয়ে জেনে গেলেন ক্যাটরিনা কাইফের (Katrina Kaif)মতো ফিগার আপনার। কেমন অদ্ভুত আকর্ষণ অনুভব করছেন তাই না। নিজের অজান্তেই জড়িয়ে যাচ্ছেন তথ্য হাতানোর খেলায়। আসলে আপনি এখানে কারিগর নন, মাধ্যম মাত্র।  কয়েকটি সংস্থা নিজেদের লাভের স্বার্থে এইভাবেই ফেসবুক ইউজারদের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করে চলেছে বেশ কিছুদিন ধরে। কিন্তু আর নয়, জেনেশুনে নিজের ব্যবসার সমূহ ক্ষতি হতে দিতে চান না মার্ক জুকারবার্গ। তাই এই ক্যুইজ সংক্রান্ত যাবতীয় খেলা বন্ধ করল ফেসবুক।

জানা গিয়েছে, প্রায় দেড় বছর ধরে নজরদারি চালানোর পরই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ফেসবুক থেকে বেআইনিভাবে তথ্য হাতানোর ঘটনায় অভিযুক্ত করা হয়েছিল উপদেষ্টা সংস্থা কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা(Cambridge Analytica)কে। অভিযোগ উঠেছিল মার্কিন মুলুকে নির্বাচনের আগে ট্রাম্পের হয়ে সংস্থাটি ক্যাম্পেন করেছিল। সেই কারণে ফেসবুক থেকে ডেটা চুরি করে তারা। তাদের তথ্য প্রভাবে ফেলে নির্বাচনের প্রচারে। এরপরই বিতর্ক দানা বাঁধে। ফেসবুক থেকে তথ্য চুরির অভিযোগে মার্চ থেকে গ্রাহক হারাতে পারে কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা।

এহেন ঘটনার পর থেকেই ইউজারদের তথ্য গোপন রাখতে সবরকম ব্যবস্থা নিচ্ছে মার্ক জুকারবার্গের কোম্পানি। প্রায় বছর খানেক পর এবার পার্সোনালিটি ক্যুইজ নিষিদ্ধ করল তারা। শুধু ক্যুইজই নয়, এই প্ল্যাটফর্মে আরও কিছু পরিবর্তন আনছে ফেসবুক (Facebook)।  নিজেদের পলিসি আপটেড থেকে শুরু করে কোনও অ্যাপ(App) ব্যবহারের আগে তার রিভিউ সংক্রান্ত বিষয় খুঁটিয়ে দেখা হবে।