Asia Cup 2022: শ্রীলঙ্কা থেকে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে সরতে পারে এশিয়া কাপ

দুবাই, ১৭ জুলাই: শ্রীলঙ্কার (Sri Lanka) পরিস্থিতির কারণে সেখান থেকে সরতে পারে এশিয়া কাপ (Asia Cup 2022)। জানা যাচ্ছে, শ্রীলঙ্কা থেকে সরে এশিয়া কাপের আসর বসতে পারে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে (UAE)। যদিও দ্বীপ দেশটি সফলভাবে অস্ট্রেলিয়া সিরিজ, ভারতের মহিলা দলের ওডিআই সিরিজ আয়োজন করেছে। এছাড়াও কোনও বড় সমস্যা ছাড়াই পাকিস্তানের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজও খেলেছে লঙ্কানরা। ইএসপিএনক্রিকইনফোতে একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে টুর্নামেন্টটি সংযুক্ত আরব আমিরাতে স্থানান্তরিত হওয়ার সম্ভাবনা সত্ত্বেও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট (Sri Lanka Cricket) এশিয়া কাপ ২০২২-র আনুষ্ঠানিক আয়োজক থাকবে। প্রতিবেদনে যোগ করা হয়েছে যে এই সপ্তাহে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (Asian Cricket Council) সভায় একটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে যে ২২ জুলাই এশিয়া কাপের নতুন সূচি ঘোষণা করতে প্রস্তুত এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল।

এই বছরের এপ্রিল থেকে শ্রীলঙ্কা তীব্র অর্থনৈতিক ও সামাজিক সংকটে জারি রয়েছে। প্রবল বিক্ষোভের মুখে দেশ ছেড়েছেন রাষ্ট্রপতি গোতাবায়া রাজাপাক্ষে। তাই বর্তমান পরিস্থিতি একেবারেই বড় টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য সঠিক নয়। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের সিইও অ্যাশলে ডি সিলভা বলেছেন,"দুটি দলকে হোস্ট করা আর দশটি দলকে হোস্ট করা এক নয়। আপনাকে তাদের সবার জন্য দশটি বাসের জ্বালানি সরবরাহ করতে হবে। আপনাকে প্রতিটি দলকে জ্বালানি সহ একটি লাগেজ ভ্যান দিতে হবে এবং ম্যানেজারদের জন্য গাড়ির ব্যবস্থা করতে হবে। স্পনসর করা সংস্থা চাইবে তাদের বিনিয়োগ থেকে লাভ। ফ্লাডলাইট জ্বালানোর জন্য জেনারেটরগুলির জন্যও জ্বালানি পেতে হবে।" ডি সিলভা যোগ করেছেন যে জ্বালানি ঘাটতি এবং রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার কারণে ম্যাচ দেখতে ক্রিকেট ভক্তরা আসতে চাইবে না। তিনি বলেন, "ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে দুটি ম্যাচ রয়েছে। অনেকেরই ম্যাচ দেখতে আসার ইচ্ছা থাকবে। কিন্তু পরস্থিতির কারণে তাঁরা শ্রীলঙ্কা ভ্রমণে খুশি নাও হতে পারেন।" আরও পড়ুন: Babar Azam: ১১ নম্বরে নামা ব্যাটারকে নিয়ে গল টেস্টে অবিশ্বাস্য সেঞ্চুরি বাবর আজমের

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে যে এশিয়া কাপ আয়োজনের ব্যয় এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল বহন করে। শ্রীলঙ্কার এতে কোনও রাজস্ব ক্ষতি হবে না। তবে হোটেল এবং পরিবহন অপারেটর ব্যবস্থা-সহ শ্রীলঙ্কার স্থানীয় অর্থনীতি উল্লেখযোগ্যভাবে লাভের সম্ভাবনা হারাবে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতীয় উপমহাদেশের বেশিরভাগ অংশে জুন থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বর্ষাকাল থাকে। এটা বিবেচনা করে অন্য ভেন্যুর সীমিত বিকল্প ছিল এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের কাছে। এখন সংযুক্ত আরব আমিরশাহি একটি সফল ভেন্যু হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে, তবে সাধারণত অগাস্টের শেষের দিকে এবং সেপ্টেম্বরের শুরুতে ওখানে আর্দ্রতার সঙ্গে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসেরও বেশি তাপমাত্রা থাকে। তাই ম্যাচগুলি সন্ধ্যার আগে শুরু হতে পারে।

ভারত ছাড়াও এশিয়া কাপে অংশ নেবে শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, আফগানিস্তান এবং বাংলাদেশ। বাকি দলগুলি বাছাইপর্ব থেকে আসবে। সম্ভাব্য় যে দলগুলি টুর্নামেন্টে খেলতে পারে তারা হল সংযুক্ত আরব আমিরশাহি, কুয়েত, সিঙ্গাপুর বা হংকং।