Maha Ashtami Wishes In Bengali: শাড়ি-পাঞ্জাবিতে সাজবে বাঙালি, হাতে হাতে থাকবে মহা অষ্টমীর শুভেচ্ছা পত্র

আজ (২২ অক্টোবর ২০২৩)মহাষ্টমী (Maha Ashtami Puja)। সকাল থেকেই  মণ্ডপে মণ্ডপে চলছে অঞ্জলি দেওয়ার প্রস্তুতি। এই কদিন বাঙালির পায়ের তলায় কার্যত সর্ষে থাকে। প্যান্ডেল হপিং থেকে খানাপিনা সবই পুজোর অঙ্গ। কিন্তু অষ্টমীর দিনটা বাঙালির কাছে খুব স্পেশাল। শাড়ি, পাঞ্জাবি পরে এই দিন সকালটা তোলাই থাকে পুষ্পাঞ্জলির জন্য। অষ্টমীর অঞ্জলির পরেই থাকবে সন্ধিপূজা তাই সন্ধিপুজোর আয়োজনেও ব্যস্ত উদ্যোক্তারা।

কখন শুরু অষ্টমী তিথি?

পঞ্জিকা মতে , গতকাল (২১ অক্টোবর) সন্ধেতেই লেগে গেছে অষ্টমী। তবে সূর্যোদয়ের পর ভোর ৫ টা ৪০ থেকে বিকেল ৫টা ১৬ অবধি রয়েছে তিথি। ৯টা ২৭ অবধি অমৃতযোগের উল্লেখ রয়েছে, তাই তার আগেই অঞ্জলি সেরে রাখা যেতে পারে।

আজকের দিনের পুজোর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ হল সন্ধিপুজো। অষ্টমী তিথির শেষ ২৪ মিনিট এবং নবমী তিথির প্রথম ২৪ মিনিট মিলে মোট ৪৮ মিনিটে সন্ধিপুজো সমাপন করতে হয়। সন্ধিপুজোয় দেবীকে ১০৮ পদ্ম এবং ১০৮ দীপদান করার রীতি রয়েছে। এই সময় দেবীকে চামুণ্ডা রূপে পুজো করা হয়। তাই সন্ধিপুজোর সমস্ত মন্ত্রই চামুণ্ডা দেবীর মন্ত্র। কথিত আছে রামচন্দ্র অষ্টমী ও নবমী তিথির সন্ধিক্ষণেই প্রথম রাবণের ১০ মুন্ড ছিন্ন করেন।

সন্ধিপুজোর সময়?

সন্ধিপুজোর সময় নিয়ে রয়েছে দুটি মত। একটি মত বলছে, সন্ধিপুজোর সময় সন্ধ্যে ৭.৩৫ মিনিট থেকে রাত ৮.২২ মিনিট পর্যন্ত। আরও একটি মত বলছে, সন্ধিপুজো বিকেল ৪.৫৪ মিনিট থেকে শুরু শেষ হবে সন্ধ্যে ৫.৪২ মিনিটের মধ্যে।

তবে অঞ্জলিতে যাওয়ার আগেই দেবী দুর্গার পুষ্পাঞ্জলি মন্ত্র, প্রণাম মন্ত্র ও স্তোত্রপাঠ দিয়ে সাজানো লেটেস্টলি বাংলার শুভেচ্ছা পত্র ছড়িয়ে যাক সকলের হাতে হাতে মুঠোফোনে।