COVID-19 Vaccination: আগামী ১৩ জানুয়ারি দেশজুড়ে করোনার ভ্যাকসিন প্রদান, জানালেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব
ভারতে প্রতিষেধক(Photo Credits: PTI)

নতুন দিল্লি, ৫ জানুয়ারি: আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকেই দেশজুড়ে করোনার ভ্যাকসিন (COVID-19 Vaccine) দেওয়ার সিদ্ধান্ত। মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠকে একথা জানালেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ। তিনি বলেন, আগামী ১০ দিনের মধ্যেই দেশজুড়ে ভ্যাকসিন। তবে আপাতত জরুরি ভিত্তিতে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। ড্রাই রানের রিপোর্টের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, জরুরি ভিত্তিতে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিনকে। প্রথম দফায় ৩০ কোটি ভ্যাকসিন দেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

করোনা তাড়াতে প্রতিষেধকের যাত্রাপর্ব শুরু হতে চলেছে ভারতে। নতুন বছরের শুরুতেই দুই করোনা টিকাকে আগেই অনুমোদন দেয় ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া। অক্সফোর্ডের কোভিশিল্ড (Coronavirus Vaccine Covishield) এবং দেশীয় টিকা কোভ্যাক্সিন সম্পর্কে ডিসিজিআই-র আধিকারিক সাংবাদিক বৈঠকে আগেই জানান, এই দুটি ভ্যাকসিন ১১০ শতাংশ নিরাপদ। তবে, যে কোনও ভ্যাকসিন নিলেই সামান্য ব্যথা, জ্বর ও অ্যালার্জির মতো সামান্য কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয়েই থাকে। আরও পড়ুন, করোনা ভ্যাকসিন পাওয়ার জন্য কীভাবে নাম নথিভুক্ত করবেন আপনি? জানুন বিস্তারিত

দেশজুড়ে ড্ৰাই রান শুরু হয় ২ জানুয়ারি থেকে। শুরু হয়েছে প্রথম সারির করোনা যোদ্ধাদের দিয়ে। যাদের মধ্যে রয়েছেন স্বাস্থ্যকর্মী, এরপর কেন্দ্র ও রাজ্যের বিভিন্ন দপ্তর, সশস্ত্র বাহিনী, হোমগার্ড, বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, পুলিশ, কারা, পৌর ও রাজস্ব বিভাগের প্রায় দুই কোটি মানুষ,ও অন্যান্য, যাঁদের বয়স ৫০ বছরের ঊর্ধ্ব তাঁরাও অগ্রাধিকার পাচ্ছেন টিকাকরণের সময়ে।