Bhima Koregaon 202nd Anniversary:  ইঙ্গ-মারাঠা যুদ্ধের ২০২ বছর পূর্তিতে ভীমা কোরেগাঁওয়ে  ৫ লক্ষ দলিতের জমায়েত, অশান্তি এড়াতে বন্ধ ইন্টারনেট
ভামা কোরেগাঁওয়ে অগুন্তি মানুষ (Photo Credits: PTI)

পুনে, ১ জানুয়ারি: আজ ১ জানুয়ারি পুণের দলিত সম্প্রদায় মাহারদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি দিন। ব্রিটিশ শাসিত ভারতে এই দিনেই পেশোয়া পদের বিলুপ্তি ঘটেছিল। এই দিনটি তৃতীয় ইঙ্গ-মারাঠা যুদ্ধের দু’শো দুই বছর পূর্তি। সেই উপলক্ষে প্রায় পাঁচ লক্ষ দলিত জড়ো হয়েছেন পুণের ভীমা কোরেগাঁও (Bhima Koregaon) অঞ্চলে। দু’বছর আগে এই অনুষ্ঠান ঘিরেই তুমুল বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি রুখতেই মহারাষ্ট্র সরকার এ দিন ১০ হাজার পুলিশ মোতায়েন করে ভীমা কোরেগাঁও অঞ্চলে। গুজব আটকাতে বন্ধ রাখা হয় ওই অঞ্চলের ইন্টারনেট পরিষেবাও। প্রতি বছরই ১ জানুয়ারি তৃতীয় ইঙ্গ-মারাঠা যুদ্ধের সমাপ্তি উপলক্ষে ভীমা কোরেগাঁওয়ে জয় স্তম্ভে প্রচুর দলিত সম্প্রদায়ের লোকজন জড়ো হন। ১৮১৮ সালে এই দিনেই ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি পেশোয়াদের পরাজিত করে।

পেশোয়াদের অবলুপ্তি ঘটাতে সেদিন ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানিকে সাহায্য করেছিল তৎকালীন সমাজে অস্পৃশ্য বলে দলিত জনগোষ্ঠী মাহার-রা। দিনটিকে তাঁরা বিজয় দিবস হিসেবে পালন করেন তখন থেকেই। এদিন সকালেই ভীমা কোরেগাঁও-এর স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন মহারাষ্ট্রের উপমুখ্যমন্ত্রী অজিত পওয়ার। যান দলিত নেতা  প্রকাশ অম্বেডকর। সারা দিনে আরও বহু হেভিওয়েট নেতামন্ত্রীর যাওয়ার কথা ওই সৌধের কাছে। দেশ জুড়ে চলতে থাকা সিএএ বিরোধী আন্দোলন ও বিশৃঙ্খলার মধ্যে এই অনুষ্ঠান থেকে যাতে কোনও গুজব না ছড়ায় তা নিশ্চিত করতেই এদিন ওই এলাকার ইন্টারনেট বন্ধ করে দেওয়া হয়। আরও পড়ুন-CDS General Bipin Rawat: সেনাবাহিনী রাজনীতি থেকে দূরেই থাকে, বিতর্কের মধ্যেই নতুন দায়িত্বভার নিয়ে বিবৃতি বিপিন রাওয়াতের

পুণের জেলাশাসক নওলকিশোর রাম মঙ্গলবারই জানিয়ে দেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় গুজব ছড়িয়ে পড়া রুখতে ভীমা কোরেগাঁও অঞ্চলের ইন্টারনেট সাময়িক বন্ধ রাখা হবে। এ দিন সকালেই মোতায়েন করা হয় প্রচুর পুলিশ। কোলহাপুরের বিশেষ পুলিশ পরিদর্শক সুভাষ ওয়াদকে সংবাদমাধ্যমকে জানান, ইতিমধ্যেই পাঁচ লক্ষ দলিত জড়ো হয়েছেন ওই অঞ্চলে। বিগত বছরগুলির মতোই এই সংখ্যাটা দশ লক্ষ ছাড়াবে বলে তাঁর অনুমান।