Indian Fishermen: জলসীমা লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে ভারতীয় মৎস্যজীবীদের উপরে ফের হামলা শ্রীলঙ্কার নৌবাহিনীর
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: AFP)

চেন্নাই, ২৭ অক্টোবর: ফের ভারতীয় মৎস্যজীবীদের উপরে হামলা চালালো শ্রীলঙ্কার নৌবাহিনী (Sri Lanka Navy)। পাথর ছুঁড়ে আঘাত করার পাশাপাশি মৎস্যজীবীদের জালও ছিঁড়ে দেওয়া হয়েছে। এই হামলায় একজন মৎস্যজীবীর আঘাত গুরুতর। বেশ কয়েকটি ট্রলারও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। জানা গিয়েছে, তামিলনাড়ু উপকূল থেকে মাছ ধরার উদ্দেশে কাটচাথিভু দ্বীপের কাছে গিয়েছিল রামেশ্বরমের এই মৎস্যজীবীদের দলটি। শ্রীলঙ্কার নৌবাহিনী ভারতীয় মৎস্যজীবীদের দেখতে পেয়েই এলাকা ছেড়ে চলে যেতে বলে। বলা হয়, তারা শ্রীলঙ্কার জলসীমা লঙ্ঘন করেছে। এরপরেই শুরু হয় হামলা। আরও পড়ুন-Single Parent: সন্তানের দেখাশোনায় এবার কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী সিঙ্গল বাবাও পাবেন সবেতন ছুটি

তবে এই ঘটনা প্রথম নয়। চলতি মাসের শুরুতেই শ্রীলঙ্কার নৌবাহানীর হামলায় ২ হাজার মৎস্যজীবী আহত হয়েছিলেন। শতাধিক ট্রলার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। বিষয়টিতে যাতে নয়াদিল্লি হস্তক্ষেপ করে, তাই তামিলনাড়ু সরকারের তরফে দরবারও করা হয়। একইভাবে ২০১১ সালে ৫ মৎস্যজীবীকে গ্রেপ্তার করেছিল শ্রীলঙ্কার নৌবাহিনী। সেবার এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। বন্দি মৎস্জীবীদের বিরুদ্ধে মাদক পাচারের অভিযোগ এনে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেয় শ্রীলঙ্কার আদালত। এই বিষয়টি নিয়ে ভারত প্রতিবাদে সরব হয়। তামিলনাড়ু জুড়ে শুরু হয় তুমুল বিক্ষোভ। পরিস্থিতি নিয়্ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে দেখে আসরে নামে শ্রীলঙ্কায় অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাস। চারদিকের চাপের মাঝে শেষে কৌশলী সিদ্ধান্ত নেয় শ্রীলঙ্কার সরকার। ৫ মৎস্যজীবীর মৃত্যুদণ্ডাদেশ স্থগিতের পাশাপাশি তাঁদের মুক্তিও দেওয়া হয়।