Lockdown: আটকে পড়া ১৯০ জন পাক নাগরিককে আটারি-ওয়াঘা সীমান্ত দিয়ে দেশে ফেরাবে ভারত
Coronavirus | Representational Image | (Photo Credit: PTI)

নয়াদিল্লি, ২ মে: লকডাউনের জেরে ভারতে আটকে পড়েছেন কমবেশি ১৫০ জন পাক নাগরিক। অবশেষে মিলল ছাড়পত্র। বিদেশমন্ত্রক (MEA)-র অনুমতিতে আগামী ৫ মে আটারি-ওয়াঘা (Attari-Wagh Crossing) সীমান্ত দিয়ে তাঁরা ফিরে যেতে পারবেন নিজেদের দেশে। রাজ্য পুলিশের সহায়তায় ৫ মে অর্থাৎ মঙ্গলবার দুপুরেই তাঁরা পৌঁছে যাবেন সীমান্তে। হিন্দুস্তান টাইমসের রিপোর্টে এই তথ্যই মিলেছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারতে কমবেশী ১৯৩ জন আটকে পড়েছেন লকডাউনের জেরে। আরও পড়ুন: Lockdown 3.0 in India: গ্রীন, অরেঞ্জ এবং রেড জোনে কী পরিষেবা বন্ধ থাকবে এবং চালু থাকবে? 

রিপোর্ট থেকে জানা যাচ্ছে, এদের মধ্যে বেশিরভাগ মানুষই পাকিস্তান থেকে এসেছিলেন আত্মীয়দের বাড়িতে, কোনও সামাজিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে কিংবা চিকিৎসার জন্য। পাক হাই কমিশন দিল্লির কাছে এদের ফিরিয়ে নিয়ে আসার আর্জি জানায়। লকডাউনের জেরে দেশের বিভিন্ন রাজ্যে আটকে পড়েছেন এরা। এদেরকে ফিরিয়ে আনারই আর্জি জানায় পাক হাই কমিশন। এরপরই এদেরকে দেশে ফিরিয়ে দেওয়ার বন্দোবস্ত করে ভারত সরকার।

কিছুদিন আগে ৪১ জন পাক নাগরিককে ফিরিয়ে নেওয়া হয়েছে দেশে। এরা দিল্লি, পাঞ্জাব, হরিয়ানা এবং উত্তরপ্রদেশে ছিলেন এরা। তবে, সেই সংখ্যাটা অনেক কম ছিল। এবার কমবেশি ১৯৩ জনকে দেশে পাঠানোর বন্দোবস্ত করছে সরকার। এরা দেশের বিভিন্ন রাজ্যে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছেন। রাজ্যগুলির মধ্যে রয়েছে- গুজরাত, পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র, রাজস্থান, ছত্তিশগড়, মধ্য প্রদেশ, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, পাঞ্জাব এবং দিল্লি।