Fire At Zaporizhzhia Nuclear Power Plant: ইউক্রেনের জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে আগুন, উদ্বেগে গোটা ইউরোপ
Fire At Zaporizhzhia Nuclear Power Plant (Photo: Twitter)

কিভ, ৪ মার্চ: ইউক্রেনের (Ukraine)  জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে (Zaporizhzhia Nuclear Power Plant) আগুন (Fire)। ইউক্রেনের বিদেশমন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবার দাবি, জাপোরিঝিয়ায় ইউরোপের বৃহত্তম পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের চারপাশে গুলি চালাতে শুরু করে রুশ সেনা (Russian Army)। এরপরই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। ইউক্রেনের আশঙ্কা, এই পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিস্ফোরণ হলে তা চেরনোবিলের তুলনায় দশগুণ বেশি ভয়ানক হবে। ইউক্রেনের জরুরি পরিষেবার সঙ্গে একটি সংস্থা বলছে যে পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মূল ঘেরের বাইরে একটি প্রশিক্ষণ ভবনে আগুন লেগে যায়। তবে পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিকিরণের মাত্রার (Radiation Levels) কোনও পরিবর্তন হয়নি। নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে জরুরি ভিত্তিতে।

তবে, ইউক্রেনের অভিযোগ, রাশিয়ান সেনারা অগ্নিনির্বাপকদের পারমাণবিক প্ল্যান্টে লাগা আগুন নেভাতে বাধা দিচ্ছে। আক্রমণকারীরা ইউক্রেনের পাবলিক রেসকিউ ইউনিটকে আগুন নেভানোর অনুমতি দিচ্ছে না। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির দাবি, রাশিয়া পারমাণবিক সন্ত্রাস চালাচ্ছে। আরও পড়ুন: Russia-Ukraine Conflict: ইউক্রেনের রাজধানী কিভে গুলিবিদ্ধ এক ভারতীয় ছাত্র, ভর্তি হাসপাতালে

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন (US President Joe Biden) রাশিয়াকে ইউক্রেনের ওই বিদ্যুৎ কেন্দ্রে গুলি চালানো বন্ধ করতে এবং জরুরি পরিষেবা চালু করার অনুমতি দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। মার্কিন প্রশাসনের এক কর্তা বলেছেন, "আমাদের সর্বশেষ তথ্যে বিকিরণের মাত্রার পরিবর্তনের কোনও ইঙ্গিত নেই এবং আমরা নিবিড়ভাবে ঘটনাটি পর্যবেক্ষণ করছি।"

ইউক্রেনের পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে রুশ বাহিনীর আক্রমণের পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন (British PM Boris Johnson) ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে পুরো ইউরোপকে বিপন্ন করার অভিযোগ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, প্রেসিডেন্ট পুতিনের বেপরোয়া পদক্ষেপ এখন সমগ্র ইউরোপের নিরাপত্তাকে সরাসরি হুমকির মুখে ফেলতে পারে।" জনসন আজ ভোরে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গেও এই বিষয়ে কথা বলেছেন।