Tala Bridge Update: জানুয়ারিতে ভাঙছে টালা ব্রিজ, ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু নতুন সেতুর কাজ
কলকাতা (প্রতীকী ছবি: File Photo)

কলকাতা, ১ নভেম্বর: দোরগোড়ায় কড়া নাড়ছে নতুন বছর (New Year)। আগামী বছরের জানুয়ারিতে (January) জীর্ণ টালা সেতু (Tallah Bridge) ভাঙা হবে বলে সিদ্ধান্ত নিল নবান্ন (Nabanna)। ফেব্রুয়ারি মাস থেকে শুরু হবে নতুন সেতু গড়ার কাজ। এক বছরের মধ্যে সম্পূর্ণ করতে হবে সেতু তৈরির কাজ। এমনটাই নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (CM Mamata Banerjee)।

আজ শুক্রবার রুগ্ন টালা সেতু নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী (Chief Minister)। পুরসভার সংশ্লিষ্ট দফতরের আধিকারিক ও পূর্ত দফতরের কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন তিনি। সেখানেই সিদ্ধান্ত হয়, জানুয়ারি মাসে ভেঙে ফেলা হবে নড়বড়ে সেতুটি। ১৫ দিনের মধ্যে সেই প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে বলেও সাফ জানিয়ে দেন মমতা। ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে নতুন টালা সেতু তৈরির কাজ। মোট এক বছরের মধ্যে নির্মাণ প্রক্রিয়া শেষ করে ফেলতে হবে বলে জানিয়ে দেন নেত্রী (Leader)। জানা গিয়েছে, নতুন সেতু তৈরির দায়িত্ব বর্তেছে পূর্ত দফতরের উপর। তবে ব্রিজের যে অংশ রেল লাইনের উপর দিয়ে গিয়েছে, তা নির্মাণের দায়িত্ব রেল মন্ত্রকের। বিপজ্জনক সেতুর উপর দিয়ে যান চলাচল নিষিদ্ধ করার কারণে প্রতিদিন অসুবিধায় পড়তে হচ্ছে নিত্যযাত্রীদের (Daily Passenger)। বেড়ে গিয়েছে নিত্য যাতায়াতের খরচ। সমস্যার সমাধানে যাত্রীদের জন্য এদিন এক টিকিটেই (Ticket) গোটা পথ সফরের সুবিধা দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। আরও পড়ুন: North Kolkata Bus Service: বন্ধ টালা ব্রিজ, লোকসান ঠেকাতে রুটে নেই বাস; ছুটির পর নারকীয় ভোগান্তিতে উত্তরের যাত্রীরা

বৃহস্পতিবার থেকে বন্ধ হয়ে গিয়েছে কামারহাটি-আলিপুর চিড়িয়াখানা যাওয়ার ২৩০ নম্বর রুটের বাস (Bus)। সেতু বন্ধের জেরে উত্তর কলকাতা (North Kolkata) সহ শহরতলির যাত্রীদের যান যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দিতে ডানলপ-এয়ারপোর্ট-নাগেরবাজার থেকে ছোট গাড়ি চালানোর কথা ভাবছে প্রশাসন। ওই এলাকাগুলি থেকে ২৪ আসনের ৫০টি ছোট বাস এবং ১০০টি মিনি বাস (Mini Bus) চালানোর পরিকল্পনা নিয়েছে পরিবহণ দফতর। তবে কোন পথে এই বাসগুলি চলবে, সে বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি।

(আনন্দবাজার পত্রিকার খবর অনুযায়ী)