West Bengal Weather Update: মঙ্গল থেকে শুক্রবার বজ্রবিদ্যুত্‍-সহ ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রাজ্যে
Representational Image (Photo Credits: PTI)

কলকাতা, ৭ মে: দক্ষিণ আন্দামান সাগর এবং তৎসংলগ্ন দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরের উপর তৈরি হওয়া নিন্মচাপ (Low Pressure Area) রবিবার সন্ধ্যার মধ্যে একটি ঘূর্ণিঝড়ে (Cyclonic Storm) পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। শনিবার জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর (IMD)। আবহাওয়া বিজ্ঞানী আর কে জেনামানি বলেছেন, "নিম্নচাপটি এটি উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হওয়ার খুব সম্ভাবনা রয়েছে, আগামী ১২ ঘন্টার মধ্যে দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে এবং রবিবার সন্ধ্যার মধ্যে পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে একটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে।" তিনি আরও জানিয়েছেন যে ১০ মে মঙ্গলবার নাগাদ ঘূর্ণিঝড়টি পশ্চিম-মধ্য এবং পার্শ্ববর্তী উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে অন্ধ্রপ্রদেশ ও ওড়িশা উপকূলের কাছে অবস্থান করবে। আজ সন্ধ্যার মধ্যে জানা যাবে এটি হবে উপকূল অতিক্রম করবে কি না।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে আগামী মঙ্গলবার থেকে শুক্রবার পর্যন্ত বজ্রবিদ্যুত্‍-সহ ভারী বৃষ্টির (Rain) সম্ভাবনা রয়েছে রাজ্যে। আজ কলকাতা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, উত্তর ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, নদিয়ায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি হতে পারে। কোথাও কোথাও ঘণ্টায় ৩০-৪০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। আগামী পাঁচ দিনে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে তাপমাত্রার খুব একটা হেরফের হবে না। অন্যদিকে, উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করা হয়েছে। মত্‍স্যজীবীদের সমুদ্রে যাওয়াতে নিষেধ করা হয়েছে। আরও পড়ুন: Amit Shah: সৌরভ গঙ্গোপাধ্য়ায়ের বাড়িতে অমিত শাহ, নিরামিষ পদ দিয়ে সারলেন নৈশভোজ

যদিও আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে গত দুই দিন ধরে ঝড় এবং ভারী বৃষ্টিপাত হচ্ছে। আগামী পাঁচদিন অরুণাচল প্রদেশ, অসম, মেঘালয়, নাগাল্যান্ড, মণিপুর, মিজোরামে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের খুব সম্ভাবনা রয়েছে। রবিবার পর্যন্ত অসম এবং মেঘালয়ে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে।