Kolkata: রাস্তায় থুতু ফেলায় নিউ আলিপুরে গ্রেপ্তার এক ব্যক্তি
জেল/ প্রতীকী ছবি (Photo Credit: Pixabay)

কলকাতা, ৩০ এপ্রিল: যত্রতত্র থুতু (Spitting) ফেলবেন না। না হলে গ্রেপ্তার হতে পারেন। দিতে হতে পরে জরিমানা। বুধবারই নিউ আলিপুরের (New Alipore) এক বাসিন্দাকে রাস্তায় থুতু ফেলার অভিযোগে গ্রেপ্তার করে কলকাতা পুলিশ (Kolkata Police)। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে সরকারি নির্দেশ লঙ্ঘন করা ও ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যাক্টে মামলা দায়ের করা হচ্ছে।

থুতু ফেলা নিয়ে এই রাজ্যে নিজস্ব আইন রয়েছে। তা হচ্ছে 'ওয়েস্ট বেঙ্গল প্রহিবিশন অফ স্মোকিং অ্যান্ড স্পিটিং অ্যান্ড প্রটেকশন অফ নন স্মোকার্স অ্যান্ড মাইনর অ্যাক্ট'। অন্য কগনিজেবল অপরাধের মতো যত্রতত্র থুতু ফেলার ক্ষেত্রেও এই আইনে সরাসরি মামলা রুজু করে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বুধবার লালবাজারের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে থানাগুলিকে। নিউ আলিপুরের ডি ব্লকে এক ব্যক্তিকে রাস্তার উপর থুতু ফেলতে দেখা যায়। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে এখন রাস্তায় থুতু ফেলা নিষিদ্ধ। তাই সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে। নিউ আলিপুর থানার ওসি অমিতশংকর মুখোপাধ্যায়ের নির্দেশে তাঁর বিরুদ্ধে বিশেষ আইন প্রয়োগ করা হয়। আরও পড়ুন: Mamata Banerjee On Rishi Kapoor: কঠিন রোগের সঙ্গে হাসিমুখে লড়েছেন, ঋষি কাপুরের জীবনাবসানে টুইটারে শোক জ্ঞাপন মমতার

এই আইনে শহরে, এমনকী রাজ্যেও এই প্রথম কেউ গ্রেপ্তার হলেন বলে পুলিশের দাবি। তবে জামিনযোগ্য অপরাধ হওয়ায় থানা থেকেই অভিযুক্ত জামিন পেয়েছেন। তবে দোষী প্রমাণিত হলে ২ হজার থেকে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে। অথবা আদালতের নির্দেশে হতে পারে জেল।