COVID-19 Impact On Global Economy: করোনার থাবায় এবার শেয়ার বাজার, ১০০০ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স
প্রতীকী ছবি(Photo Credit: PTI)

নতুন দিল্লি, ২৮ ফেব্রুয়ারি: করোনার তাড়ায় গোটা বিশ্ব কম্পমান। সীমান্ত সিল করে দিয়েছে চিন। এবার শেয়ার বাজারেও করোনাভাইরাসের থাবা, এক ধাক্কায় হুড়মুড়িয়ে হাজার পয়েন্ট পড়ে গেল সেনসেক্স। নিফটি নেমে গেল ৩০০ পয়েন্টেরও নিচে। নভেল করোনাভাইরাসের (COVID-19) আতঙ্কে সবাই সিঁটিয়ে আছে। শুধু ভারত নয়, করোনা আতঙ্কের জেরে বিশ্ববাজারেও নজিরবিহীন পতন দেখা গেল। মার্কিন সূচক ডাউ জোনস পড়ে ১,১৯০ পয়েন্ট। ঐতিহাসিক পতন বলে ব্যাখ্যা করছেন শেয়ার বিশেষজ্ঞরা। জার্মানির ড্যাক্স (-৪০৭), জাপানের নিকি (-৮১৮), হ্যাংসেং (-670) সূচকের ব্যাপক ধস নামে। শেয়ার বিশেষজ্ঞরা এই দিনটিকে ‘ব্ল্যাক ফ্রাইডে’ হিসাবে চিহ্নিত করছেন।

উল্লেখ্য, শুধু ভারত নয়, বিশ্বের প্রায় সব দেশের শেয়ার সূচক ছিল নিম্নগামী। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ২০০৮ সালের পর এই প্রথম এমন মন্দা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। কেন এমন পতন? তাঁদের মতে, চিনে ব্যাপকভাবে করোনা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ায় মূল আঘাত পড়েছে বাণিজ্যের উপর। অনেক দেশই আমদানি-রফতানির উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করছে। বিমান বন্দরেও জারি করা হয়েছে বিধি নিষেধ। জাপান, সিঙ্গাপুর অস্ট্রেলিয়া থেকে  ইরান এমনকী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনার জোরালো প্রভাব পড়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চিন-মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শুল্কযুদ্ধে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্যে যে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছিল, তার থেকেও ভয়াবহ আকার ধারণ করতে চলেছে। আরও পড়ুন-Amit Shah And Mamata Banerjee: শুক্রবার ভুবনেশ্বরে অমিত শাহর মুখোমুখি মমতা, সেটিং করতে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী; বললেন দিলীপ

করোনা থাবা একে একে গ্রাস করে ফেলেছে ৫০টি দেশ। চিনের অবস্থা একেবারেই সঙ্গীন। প্রিয় বন্ধু পাকিস্তান প্রাণ বাঁচাতে সীমান্ত সিল করেছে। ইরান, ইরাক, ইতালি, ওমান, সুইৎজারল্যান্ড। করোনাভাইরাসের আতঙ্ক সব জায়গাতেই তাড়া করে ফিরছে। স্বাভাবিকভাবেই ব্যবসা বাণিজ্য একেবারে বন্ধ, শেয়ার বাজারে যে তার প্রভাব পড়বে বলাই বাহুল্য।