RBI Governor Shaktikanta Das: করোনার বাজারে ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্পে ৫০ হাজার কোটির আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা রিজার্ভ ব্যাংকের
আরবিআই গভর্নর শক্তিকান্ত দাস (Photo Credits: IANS/File)

নতুন দিল্লি, ১৭ এপ্রিল: মহামারী করোনায় বিপর্যস্ত গোটা বিশ্ব। ভারতের অবস্থাও শোচনীয়। এমনিতেই দেশের অর্থনীতি মন্দার গ্রাসে ছিল, মহামারীর কবলে পড়ে তার অবস্থা আরও খারাপ হয়েছে। সংক্রমণ এড়াতে দেশে চলছে দ্বিতীয় পর্যায়ের লকডাউন। এরমধ্যেই যেখান থেকে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে বেশি সেইসব জায়গাগুলিকে চিহ্নিত করে রেড জোন ঘোষণা করা হয়েছে। অল্প সংখ্যাক সংক্রামিত এলাকাকে অরেঞ্জ জোন ও যেখানে সংক্রম নেই সেই জায়গাকে গ্রিন জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এরমধ্যেই দেশের ধুঁকতে থাকা বানিজ্যিক ক্ষেত্রগুলির জন্য সম্ভাব্য আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করার পথে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। গতকাল এনিয়ে প্রধানমন্ত্রী সঙ্গে একপ্রস্থ আলোচনাও সেরেছেন। এবার সাংবাদিক সম্মেলনে আরবিআই গভর্নর (Shaktikanta Das)।

এদিন রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার গভর্নর শক্তিকান্ত দাস বলেন, ভারতের সম্ভাব্য আর্থিক বৃদ্ধির হার ১.৯ শতাংশ। ২০২০-২১ অর্থবর্ষে বৃদ্ধির সম্ভাব্য হার ৭.৪ শতাংশ। জি ২০ দেশগুলোর মধ্যে ভারতের বৃদ্ধির হার সবথেকে বেশি। করোনা মোকাবিলায় রিজার্ভ ব্যাংক সমগ্র পরিস্থিতির উপরে নজর রাখছে।  করোনা মোকাবিলায় ব্যাংকগুলিতে নগদের জোগান বাড়ানো হয়েছে। জিডিপির ৩.২ শতাংশ নগদের জোগান দেওয়া হয়েছে। করোনা মোকাবিলায় সামনের সারিতে থাকা চিকিৎসক ও চিকিৎসাকর্মীদের কুর্নিশ জানিয়েছেন তিনি। আইএমএফ ইতিমধ্যেই করোনা ত্রস্ত দেশকে মহামন্দার পরিস্থিতির সঙ্গে তুলনা করেছে। বিশ্বের অর্থনীতি কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। আইএমএফ আর্থিক বৃদ্ধিতে ধাক্কার আশঙ্কা প্রকাশ করেছে। সবথেকে বড় ক্ষতির মুখে গাড়ি শিল্প। আরও পড়ুন-Nirmala Sitharaman: মন্দা রুখতে লকডাউনে বিপর্যস্ত সেক্টরের জন্য আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণার সম্ভাবনা অর্থমন্ত্রীর

এ বছর বৃষ্টির স্বাভাবিক পূর্বাভাস খানিকটা স্বস্তির। মানবিক স্বার্থে যা যা করা প্রয়োজন তা করতে হবে। ব্যাংকের রেপো রেটের ক্ষেত্রে কোনও পরিবর্তন আসছে না। তবে রিভার্স রেপো ২৫ বেসিস পয়েন্ট কমেছে। ৪ বেসিস পয়েন্ট থেকে কমে দাঁড়াল ৩.৭৫ পয়েন্ট। একই সঙ্গে আবাসন শিল্পে ১০ হাজার কোটির প্যাকেজ ঘোষণা করল রিজার্ভ ব্যাংক। এখনকার পরিস্থিতি বিচার করে ক্ষুদ্র শিল্পে ৫০ হাজার কোটির প্যাকেজ ঘোষণা করা হল। পরে বিচার বিবেচনা করে তা বাড়ানো যেতে পারে।