COVID-19 Vaccine Update: ভারতে তৈরি ২টি ক্যান্ডিডেট ভ্যকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল দ্রুত শুরু হবে, জানাল স্বাস্থ্য মন্ত্রক
ভ্যাকসিন (Photo credits: Flickr)

নতুন দিল্লি, ৯ জুলাই: ভারতে তৈরি দুটি ক্যান্ডিডেট ভ্যাকসিনের (COVID-19 Vaccine) ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল (Clinical Trials) খুব তাড়াতাড়ি শুরু হবে। জানাল কেন্দ্রীয় সরকার। আজ স্বাস্থ্য মন্ত্রক (Health Ministry) জানিয়েছে, Covaxin ও ZyCoV-D-র ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু হবে। আজ স্বাস্থ্য মন্ত্রকের আধিকারিক রাজেশ ভূষণ (R Bhushan) বলেন, "ভারত বায়োটেক এবং ক্যাডিলা ভ্যাকসিন তৈরি করছে। অনুমোদনের পরে উভয়ই সংস্থা তা পশুর ওপর প্রয়োগ করে অধ্যয়ন করেছে। এই দুটি ভ্যাকসিনকে পর্যায় ১ এবং ২ ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে পাঠানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছে। আশা করি শীঘ্রই ট্রায়াল শুরু হবে।"

বৃহস্পতিবার এক সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের আধিকারিক রাজেশ ভূষণ পরিসংখ্যান দিয়ে বলেন, ১৩০ কোটির দেশ ভারত। এত বেশি জনসংখ্যা হওয়া সত্বেও ভারতে করোনা সংক্রমণ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। ১০ লাখ প্রতি হিসেবে যে সেই সংখ্যাটা অনেকটাই কম। তিনি বলেছেন, এক মিলিয়নে কত জন করোনা আক্রান্ত, সেই হিসেবে ভারতে সংক্রমণ বিশ্বের মধ্যে সব থেকে কম। আরও পড়ুন: India Global Week 2020: বিশ্বের মঙ্গল ও সমৃদ্ধির জন্য ভারত যা কিছু করতে পারে, তা করতে প্রস্তুত: নরেন্দ্র মোদি

রাজেশ ভূষণ বলেন, "বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারতে প্রতি মিলিয়নে করোনা আক্রান্ত ৫৩৮ জন। কোনও কোনও দেশে এই হিসেব ভারতের থেকে ১৬-১৭ গুণ বেশি। এছাড়া, প্রত্যেক মিলিয়নে মৃত্যু হচ্ছে ১৫ জনের, সেই সংখ্যাটাও বিশ্বে সবথেকে কম। অন্যান্য দেশে এই পরিসংখ্যান ৪০ গুণ বেশি।"

আজই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন বলেন, দেশে এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণ ছড়ায়নি। জানালেন। তাঁর কথায়, “আজকে আলোচনা চলাকালীন বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, দেশে এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়নি। কিছু এলাকায় সংক্রমণের হার অত্যন্ত বেশি। কিন্তু তা গোষ্ঠী সংক্রমণ নয়।”