Bihar Floods: বিহারে বন্যায় মৃত বেড়ে অন্তত ৭৩, এখনও জলের তলায় রাজধানী পাটনা
বিহারে বন্যা (Photo Credits: PTI)

পাটনা, ৩ অক্টোবর: বিহারে বন্যায় (Bihar floods) মৃতের সংখ্যা বেড়ে কমপক্ষে ৭৩। রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর জানিয়েছে, সব থেকে বেশি মৃত্যু হয়েছে ভাগলপুরে(Bhagalpur)। বৃহস্পতিবার বেশ কয়েকটি অঞ্চল স্বাভাবিক হওয়ার পথে এলেও রাজধানী পাটনার (Patna) পাটালিপুত্র কলোনি এবং রাজেন্দ্রনগরের অবস্থা একইরকম। প্রবল বৃষ্টির কারণে রাজ্যের অনেক জায়গায় বিশেষ করে পাটনায় বন্যার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়। বৃষ্টির জল জমে যাওয়ার কারণে বিদ্যুতের সাব স্টেশনগুলি বন্ধ। তার ফলে গত কয়েকদিন ধরে পুরো এলাকা বিদ্যুৎহীন। বৃষ্টি কমায় জোরকদমে উদ্ধারকাজ শুরু হয়েছে।

অবিরাম বৃষ্টির কারণে জলমগ্ন হয়েছে পাটনা, ভোজপুর, ভাগলপুর, খাগড়িয়া, সমস্তিপুর, বেগুসরাই, লখিসারাই এবং বৈশালি। এ ছাড়াও মগধ অঞ্চলের আরওয়াল, নওদা ও নালন্দা এবং মিথিলার দারভাঙা ও কাটিহারো জলমগ্ন। গঙ্গা, কোশী, গন্ডক, বাগমতী, মহানন্দাসহ বড় বড় নদীতে জলস্তর ক্রমেই বাড়ছে। আরও পড়ুন: Bihar Floods: বিপদসীমার উপরে বইছে গঙ্গা, কোশী, বাগমতী; বিহারে বন্যায় মৃত বেড়ে ৪২

বুধবার অবধি জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর দলগুলি ৯,০০০ -রও বেশি বন্যাকবলিত মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়েছে। নৌকার সাহায্যে বন্যাকবলিত মানুষদের খাদ্য, ওষুধ, পানীয় জলের মতো প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র সরবরাহ করা হচ্ছে। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় বন্যার জল বাড়ি, দোকান ও হাসপাতালে ঢুকে গেছে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত অঞ্চলের মানুষকে সাহায্য করতে বেশ কয়েকটি এলাকায় নৌকা মোতায়েন করা হয়েছিল। প্রবল বৃষ্টির কারণে জল ঢুকেছে বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সতন্দ্র নায়ায়ণ সিং (Satyendra Narayan Sinha) র বোরিং রোডের বাড়িতে। জল ঢুকেছে বিজেপি সাংসদ রাজীব প্রতাপ রুডি (Rajiv Pratap Rudy) এবং প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জিতন রাম মাঝি (Jitan Ram Manjhi)-র পাটনার বাড়িতে।