বেতনই যথেষ্ট, সংস্থার দেওয়া ৫৮ মিলিয়ন ডলার ফেরালেন গুগল সিইও সুন্দর পিচাই
গুগল সিইও কুন্দর পিচাই(Photo Credit: IANS)

মাসিক বেতনে তাঁর দিব্যি চলে যায়, এর থেকে বেশি অর্থের প্রয়োজন  নেই। এই বলেই গুগলের দেওয়া ৫৮ মিলিয়ন ডলারের স্টক শেয়ার ফেরালেন গুগলের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার  (Google CEO) সুন্দর পিচাই। ফিরিয়ে দেওয়া অর্থের ভারতীয় অঙ্ক ৪০৫ কোটি টাকা। গুগলের সিইও কেন  সংস্থার দেওয়া এই শেয়ার ফিরিয়ে দিলেন তানিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে।

আইআইটি খড়গপুরের প্রাক্তনী সুন্দর পিচাই ২০০৪ সালে গুগলে যোগ দেন। ২০১৪ সালে গুগলের সেই সময়কার সিইও ল্যারি পেজের কাছ থেকে সংস্থার সর্বোচ্চ ক্ষমতা চলে আসে পিচাইয়ের হাতে। তার পরের বছর ২০১৫ সালেই তাঁকে গুগলের সিইও করা হয়।  তখনই তিনি আড়াইশো মিলিয়ন ডলার সমমূল্যের শেয়ার পান। তার পরে ২০১৫ এবং ২০১৬ সালেও তাঁকে ১০০ মিলিয়ন ডলারের স্টক দেয় গুগল। ২০১৬ থেকে পিচাইয়ে বেতন হয় বছরে সাড়ে ৬ লক্ষ ডলার। তার সঙ্গে আছে আরও অনেক সুযোগ সুবিধা। বলা বাহুল্য, আমরা গুগল ক্রোম (Google Chrome) ও গুগল ড্রাইভ  (Google Drive)  পেয়েছি সুন্দর পিচাইয়ের  ( Sundar Pichai)  বদান্যতায়। তাঁরই হাতে রয়েছে জি-মেল ও গুগল ম্যাপের নিয়ন্ত্রণ। জন্মসূত্রে তামিল সুন্দর পিচাই ও তাংর টিমের সবথেকে বড় অবদান অবশ্যই অ্যানড্রয়েড-এর জন্য। সেই পিচাই কিনা সংস্থার দেওয়া এই বিরাট অঙ্কের স্টক শেয়ার নিতে রাজি হলেন না।

জানা গিয়েছে, গুগল তাদের রেস্ট্রিকটেড স্টক (কর্মীদের দেওয়া হয় এমন শেয়ার) অফার করেছিল পিচাইকে। তার পরিমাণ ছিল ৫৮ মিলিয়ন ডলার। এই বিপুল পরিমাণ টাকার অফার ফিরিয়ে দিয়ে পিচাই বলেছেন,  তিনি বেতন হিসেবেই অনেক টাকা পান,  আর টাকার প্রয়োজন নেই। তবে  এটাও ঠিক যে এই রেস্ট্রিকটেড স্টক পেতে হলে কর্মীদের কিছু শর্তাবলী মানতেই হয়। তা ছাড়া,  এই পরিমাণ শেয়ার নিলে ভবিষ্যতে তাঁকে অনেক রকম বিতর্কে পড়তে হতে পারে,  এসব ভাবনা থেকেই হয়তো গুগলের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন পিচাই। এমনটা মনে করছে আন্তর্জাতিক মহল, তবে গোটা বিষয়টি নিয়ে জল্পনার শেষ নেই। তা সে যতই জল্পনা থাক, পিচাই যে মাটির কাছাকাছিই নিজেকে রাখতে পেরেছেন, এই ঘটনা তারই নিদর্শন। নাহলে সংস্থার দেওয়া ৪০৫ কোটি টাকা অবলীলায় ফেরাতে পারেন।