Poila Boishak Traditional Dishes: চিতল মাছের মুইঠ্যা থেকে লিচু-পায়েস, বাঙালির পাতে শুধুই বাঙালিয়ানার ছোঁয়া
Photo Source: Instagram

নববর্ষ (Poila Boishak) বলে কথা, এদিনে খাওয়া দাওয়া তো বাঙালির মাস্ট। বাংলা নববর্ষের শুরুতে সকলে "শুভ নববর্ষ" জানিয়ে শুভেচ্ছা আদানপ্রদান চলে, অন্যদিকে বড়দের প্রণাম। এদিন সকাল সকাল নতুন জামা পরারও রীতি রয়েছে। তবে সবকিছু পেরিয়ে এদিন খাওয়া-দাওয়াটাই যেন আসল। সক্কাল সক্কাল বাড়ির কত্তারা বেড়িয়ে পরেন থলে নিয়ে বাজার করতে। হরেক-রকমের পদ থালায় সাজিয়ে গুজিয়ে খাওয়াই অভ্যেস বাঙালির। রেস্তোরাঁর বদলে বাড়িতে ট্র্যাডিশনাল খাবার বানিয়ে খেতেই পছন্দ করে আমবাঙালি। ব্রেকফাস্ট থেকে ডিনার। সবেতেই থাকে হরেক-রকম সুস্বাদু খাবার আর পুরোদস্তুর বাঙালিয়ানার ছোঁয়া। আরও পড়ুন: Shubo Nabo Barsho 2020: হালখাতার ইতিকথা...জানেন এর ইতিহাস?

লুচি-ছোলার ডাল

বাঙালির সঙ্গে লুচির জুটি যেন অনবদ্য। লুচির সঙ্গে নারকেল দিয়ে ছোলার ডাল, আহা! অমৃত।

বাসন্তী পোলাও

ঘি-কাজুবাদাম-কিসমিস দিয়ে তৈরি এই পোলাও। বাসমতি চাল দিয়ে তৈরি এই পোলাও। আমিষ কিংবা নিরামিষ যেকোনও পদের সঙ্গেই দুর্দান্ত মানানসই এই বাসন্তী পোলাও।

চিতল মাছের মুইঠ্যা

চিতলের দাম একটু বেশি বটে! কিন্তু একটা দিন চলতেই পারে। উফ জিভে জল এসে গেল! গানেই আছে, 'চিতল মাছের মুইঠ্যা, গরম ভাতে দুইটা'।

চিংড়ি মাছের মালাইকারি

চিংড়ি মাস্ট বাঙালির পাতে। নারকেল দিয়ে তৈরি পদের 'এ স্বাদের ভাগ হবে না'।

কষা মুরগির মাংস

গ্রীষ্ণের দুপুরে মুরগির মাংস হবে না, এটা অসম্ভব একটা বিষয় বাঙালির কাছে। ঝাল ঝাল করে লঙ্কা সাজিয়ে কে না খেতে ভালবাসে কষা মুরগি?

কচি পাঁঠার ঝোল

আহা! দেখেই যেন জিভে জল আসছে! এই দিনে যত লম্বা লাইনই হোক বাজারে কিংবা যত দামই হোক। গ্যাঁটের কড়ি খরচ করে 'ধুতি গুঁটিয়ে' বাজার ফেরত বাঙালির থলেতে মাটন থাকবেই।

লিচু-পায়েস

গরম পড়তেই গাছে গাছে লিচু উঁকি দেয়। ঘন পায়েসের সঙ্গে লিচু মিশিয়ে তৈরি হয় এই বিশেষ রেসিপি। এই ডেজার্ট বাঙালির শেষপাতে পড়লে একেবারে জমে ক্ষীর।

মিষ্টি দই

এই দিনে ডায়েটকে বাই-বাই। হাঁড়ি ভর্তি মিষ্টি দই চেটেপুটে না খেলে কী আর নববর্ষ পালন সম্পূর্ণ হয় বাঙালির!