Child Oral Health Care:  কখন এবং কিভাবে করতে হয় শিশুদের দাঁত ব্রাশ, জেনে নিন কীভাবে নেবেন শিশুর দাঁতের যত্ন...
Photo Credits: Facebook/CoffeeCreekStudio

শরীরের সঙ্গে মুখের স্বাস্থ্যের যত্ন নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এর জন্য অন্তত দিনে দুবার দাঁত ব্রাশ করা উচিত। বয়স্কদের পক্ষে মুখের স্বাস্থ্যের যত্ন নেওয়া খুব সহজ। তবে ছোট শিশুদের কখন দাঁত ব্রাশ করানো উচিত বা কোন বয়স থেকে ব্রাশ করানো শুরু করা উচিত এই নিয়ে অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগে। চলুন আজ এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজে নেওয়া যাক।

ছোট শিশুদের মুখের স্বাস্থ্যের যত্ন নেওয়া উচিত। কারণ শিশুদের জন্ম হওয়ার পর থেকেই তারা খেতে শুরু করে, এরপর ধীরে ধীরে দাঁত উঠতে শুরু করে তাদের। দাঁত উঠতে শুরু করা মানেই শুরু করতে হবে সেই দাঁতের যত্ন নেওয়া। সাধারণত ৬ মাস থেকে এক বছর বয়সের মধ্যে শিশুর দাঁত উঠতে শুরু করে। তবে প্রথমেই দাঁতে ব্রাশ ব্যবহার করা উচিত নয়। কাপড়ের সাহায্যে হালকা গরম জল দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে শিশুদের দাঁত। আঙ্গুলের সাহায্যে দাঁত ও মাড়ি উভয়ই পরিষ্কার করতে হবে।

দেড় থেকে দুই বছর বয়সে শিশুকে ব্রাশ করার অভ্যাস করাতে হবে। শিশু যখন থুতু ফেলতে শেখে তখন থেকে ব্রাশ করা শেখাতে হবে, নাহলে দাঁত মাজার পর থুথু ফেলতে পারবে না। দেড় বছরের কম বয়সী শিশুদের ব্রাশ করানো উচিত নয়। শিশুকে দিনে দুবার ব্রাশ করার অভ্যাস করাতে হবে। এটি মুখের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভালো। একটি ছোট শিশুর মাড়ি খুব নরম এবং কোমল হয়। তাই ব্রাশ ব্যবহার করলে আঘাত লাগতে পারে। সবসময় খেয়াল রাখতে হবে শিশুর টুথব্রাশ যেন খুব নরম এবং মসৃণ হয়।