Sputnik V: স্পুটনিক ভি-র দ্বিতীয় ব্যাচও চলে এল ভারত, এবার মিটবে কি অভাব!
ছবি এএনআই

হায়দরাবাদ, ১৬ মে: দেশে চলে এল রাশিয়ান টিকা স্পুটনিক ভি (Sputnik V)-র দ্বিতীয় ব্যাচ। রবিবার তেলেঙ্গানার হায়দরাবাদের স্পুটনিক ভি-র দ্বিতীয় ব্যাচ আসার পর ভারতে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত নিকোলায় কুদাশেভ (Nikolay Kudashev) জানান, এটি দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের বিশেষ উদাহরণ এবং আন্তর্জাতিক অতিমারির বিরুদ্ধে যুদ্ধে কার্যকরী মডেল। ভারতে প্রতি বছর এই ভ্যাকসিনের ৮৫ কোটি ডোজ উৎপাদন সম্ভব হবে বলে আশাপ্রকাশ করেছে রাশিয়া (Russia)। এপ্রিলের মাঝামাঝি ভারতে জরুরি ভিত্তিতে স্পুটনিক ভি টিকা প্রয়োগে ছাড়পত্র দেয় কেন্দ্রের ড্রাগ নিয়ামক সংস্থা ডিসিজিআর৷ এই ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা ৯১%-র মত বলে দাবি করা হয়েছে। দ্বিতীয় ব্যাচে ঠিক কত পরিমান ভ্যাকসিন এসেছে তা এখনও জানা যায়নি। আরও পড়ুন: বিশ্বব্যাপি করোনায় মৃত্যু সাড়ে ৩৩ লক্ষ ছাড়াল,কবে থামবে মৃত্যু মিছিল!

গত পয়লা মে এসেছিল স্পুটনিকের প্রথম ব্যাচ। এটাই ভারতে আসা প্রথম বিদেশী ভ্যাকসিন। ১৪ মে হায়দরাবাদে এই কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে রাশিয়ার এই ভ্যাকসিনের দাম করা হয়েছে ৯৯৫.৪০ টাকা। ডক্টর রেড্ডির ল্যবরেটরির তরফে জানানো হয়েছিল এই খবর। ডক্টর রেড্ডির ল্যাবরেটরির দীপক সাপরাকে প্রথম স্পুটনিক ভি ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছিল। সূত্রের খবর, প্রথম ব্যাচে ১,৫০,০০০ স্পুটনিক ভি ভ্যাকসিন ভারতে রাশিয়া থেকে আমদানি করা হয়েছিল। ভারতে এখন কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিন দেওয়ার কাজ জোর কদমে চলছে।

দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে আসছে টিকার অভাবের খবর। পয়লা মে থেকে দেশের ১৮ বছরের উর্ধ্বে সবাইকে টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হওয়ার কথা থাকলেও এখনও টিকার অভাবে বিভিন্ন রাজ্যে শুরু করা যায়নি। স্পুটনিক ভি আসার পর টিকার অভাব অনেকটাই মিটতে চলছে বলে মনে করা হচ্ছে।