Delhi: বেআইনি নিয়োগের অভিযোগ দিল্লি মহিলা কমিশনের প্রাক্তন চেয়ারপার্সন স্বাতীর বিরুদ্ধে, রাতারাতি চাকরি খোয়ালেন ২২৩ কর্মী
Swati Maliwal, Delhi Lieutenant Governor VK Saxena (Photo Credits: X)

নয়া দিল্লি, ২ এপ্রিলঃ দেশজুড়ে ভোট আবহের মাঝে দিল্লি মহিলা কমিশনের (DWC) ২২৩ জন কর্মীকে রাতারাতি ছাঁটাই করা হল। ওই ২২৩ জন কর্মীর নিয়োগ বেআইনিভাবে করা হয়েছিল, অভিযোগ তুলে তাঁদের চাকরি বাতিল করার সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন দিল্লি লেফটেন্যান্ট গভর্নর ভিকে সাক্সেনা (Delhi Lieutenant Governor VK Saxena)। বৃহস্পতিবার মহিলা এবং শিশু উন্নয়ন দফতরের তরফে বিবৃতি প্রকাশ করে ওই ২২৩ জন কর্মীকে অফিসে না আসার নির্দেশ জারি করা হয়েছে।

মার্চ মাসে আবগারি দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার হন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওাল (Arvind Kejriwal)। এরই মাঝে দিল্লি লেফটেন্যান্ট গভর্নরের সিদ্ধান্ত বাড়তি চাপ সৃষ্টি করেছে আম আদমি পার্টি (Aam Aadmi Party) দলের উপর। ২০১৭ সালে দিল্লি মহিলা এবং শিশু উন্নয়ন দফতরের নিয়ম না মেনে ওই ২২৩ জনকে নিয়োগ করার অভিযোগ উঠেছে কমিশনের তৎকালীন চেয়ারপার্সন স্বাতী মালিওয়ালের (Swati Maliwal) বিরুদ্ধে। বর্তমানে যিনি আপ সরকারের (AAP) রাজ্য সভার সাংসদ। গত জানুয়ারিতে স্বাতীকে রাজ্যসভার সাংসদ হিসাবে মনোনীত করেন আপ (AAP) প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal)। এরপরেই দিল্লি মহিলা কমিশনের পদথেকে ইস্তফা দেন তিনি।

ছাঁটাই ২২৩... 

কমিশনের তরফে প্রকাশিত বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ডিডব্লিউসি-এর তৎকালীন চেয়ারপার্সন স্বাতী মালিওয়াল অর্থ বিভাগ এবং লেফটেন্যান্ট গভর্নরের অনুমোদন ছাড়াই এই ২২৩ জন কর্মচারীকে নিযুক্ত করেছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছে। আরও জানানো হয়েছে, মহিলা কমিশনের জন্যে মোট ৪০টি পদ বরাদ্দ আছে। সেখানে বাড়তি আরও ১৮৩ জনকে নিয়োগ করা হয়েছিল। অথচ নিয়োগের সময় কোনও যথাযথ পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়নি। দিল্লি লেফটেন্যান্ট গভর্নরের থেকে কোন প্রয়োজনীয় অনুমতি নেওয়া হয়নি। দিল্লির মহিলা কমিশনের প্রাক্তন চেয়ারপার্সন স্বাতী মালিওয়ালের (Swati Maliwal) বিরুদ্ধে নিয়ম না মেনে বেআইনিভাবে নিয়োগের অভিযোগ তুলে ২২৩ জন কর্মীর চাকরি বাতিলের ঘোষণা করেন দিল্লি লেফটেন্যান্ট গভর্নর।