#BoycottChapaak: JNU-তে প্রতিবাদকারী পড়ুয়াদের পাশে দাঁড়াতেই টুইটার ট্রেন্ডে দীপিকার 'ছপ্পক' বয়কট
(Photo Credits: Twitter)

নয়াদিল্লি, ৮ ডিসেম্বর: ৭ জানুয়ারি, সন্ধে ৭.৪৫, জেএনইউ-তে পা রাখলেন দীপিকা পাড়ুকোন(Deepika Padukone)। কালো রংয়ের জ্যাকেটে দীপিকার মুখ ছিল থমথমে। অফিসিয়াল স্টেটমেন্ট কিছুই রাখেননি তিনি। শুধু আক্রান্তকারীদের সঙ্গে একলাইনে দাঁড়িয়ে রইলেন চুপচাপ। দেখা করে 'হাতজোড়' করে নমস্কার করেন জেএনইউএসইউ-এর সভাপতি ঐশী ঘোষের সঙ্গে। সেদিনই বিশ্ববিদ্যালয়ে যান কানাহাইয়া কুমারও। ঘটনাটির পরই নেটিজেনদের বিতর্কের মুখে পড়েন দীপিকা পাড়ুকোন। 'ছপ্পক'(Chhapaak) বয়কটের ট্রেন্ড চলছে টুইটার জুড়ে। আরও পড়ুন: Shatabdi Express: শতাব্দী এক্সপ্রেসের পাউরুটি খেয়ে সুরাটে অসুস্থ ৩৫ মহিলা!

 আগামী ১০ জানুয়ারি মুক্তি পেতে চলেছে দীপিকা পাড়ুকোনের 'ছপ্পক'। গোটা ছবিটি অ্যাসিড আক্রান্ত সমাজসেবী লক্ষ্মীর উপর তৈরি ছবিটি। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন মহলে প্রশংসা কুড়িয়েছেন দীপিকা পাডু়কোন। কিন্তু এই একটা পদক্ষেপের জন্যই বিভিন্ন মহলে বিতর্কের মুখেও পড়লেন দীপিকা। টুইটার ট্রেন্ডে আপাতত শীর্ষে #boycottchhapaak। যারা টুইট করেছেন। তাদের মধ্যে বেশিরভাগই রয়েছেন ডানপন্থী দলের সমর্থক। সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ক্যাম্পেনও চলছে যেখানে ছপ্পক বয়কটের জন্য গলা চরাচ্ছে অনেকেই। ছুঁড়ে দেওয়া হচ্ছে চ্যালেঞ্জও 'ছপ্পক' বয়কটের।

তবে অনেকেই দীপিকার এই সাহসী পদক্ষেপের সমর্থন জানিয়েছেন। নিজের টুইটার ডিপি বদলেছেন অনুরাগ কাশ্যপ। পাশাপাশি টুইটেও মন জয় করেছেন তিনি সবার। অনুরাগের পাশাপাশি টুইট করেন স্বরা ভাস্কর, হিমা কুরেশি, সোনাক্ষী সিনহা এবং 'ছপ্পক'-এ দীপিকার সহ-অভিনেতা বিক্রান্ত মেসি।