Pakistan: আস্থা ভোটের আগে আরও চাপে ইমরান খান, নিরুদ্দেশ তাঁর দলেরই ৫০ জনের বেশি মন্ত্রী
Pakistan Prime Minister Imran Khan (Photo: ians)

ইসলামাবাদ, ২৬ মার্চ: অনাস্থা ভোটের আগে আরও চাপে পাকিস্তানের (Pakistan) প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (Imran Khan)। জানা যাচ্ছে, তাঁর দল তেহরিক-ই-ইনসাফ (PTI)-র ৫০ জনের বেশি মন্ত্রী রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড থেকে আচমকা নিরুদ্দেশ হয়ে গিয়েছেন। বিরোধীরা প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব (No-Trust Motion) আনার পর থেকে ৫০ জনের বেশি ফেডারেল ও প্রাদেশিক মন্ত্রীকে জনসমক্ষে দেখা যায়নি। সূত্র জানিয়েছে যে এই মন্ত্রীদের মধ্যে ২৫ জন ফেডারেল এবং প্রাদেশিক উপদেষ্টা এবং বিশেষ সহকারী। বাকিদের মধ্যে ৪ জন প্রতিমন্ত্রী, ৪ জন উপদেষ্টা এবং ১৯ জন বিশেষ সহকারী।

গতকাল পাকিস্তান ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির (Pakistan National Assembly Session) অধিবেশ শুরু হয়। যদিও স্পিকার  ২৮ মার্চ সোমবার পর্যন্ত অধিবেশন মুলতবি করে দেন।ওইদিনই ইমরান খান (Imran Khan) সরকারের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাবে (No-Confidence Motion) ভোটাভুটি হবে বলে জানা যাচ্ছে।

ইমরান খানকে ক্ষমতাচ্যুত করার জন্য বিরোধী দলগুলি ৮ মার্চ পাকিস্তানের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করে। ৩৪২ সদস্যের ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে অনাস্থা ভোটে জিততে ইমরান খান সরকারের কমপক্ষে ১৭২ সদস্যর সমর্থন প্রয়োজন। ইমরানের নিজের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ বা পিটিআই (Pakistan Tehreek-e-Insaf)-র সদস্য ১৫৫ জন। অন্য দলের ১৭ জন সদস্যের সমর্থনে সরকার চালাচ্ছিলেন তিনি। যদিও সেই সমর্থন প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে বলে খবর। ইমরানের নিজের দলেরও বেশ কয়েকজন সাংসদ বিরোধীদের পাশে রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। ফলে ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করা ইমরানের পক্ষে কার্যত অসম্ভব হয়ে গিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।