Krishna Basu Died: শিক্ষাবিদ-রাজনীতিক কৃষ্ণা বসুর প্রয়াণে শোকপ্রকাশ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের
শিক্ষাবিদ ও রাজনীতিক কৃষ্ণা বসু (Picture Credits: PTI)

কলকাতা, ২২ ফেব্রুয়ারি: চলে গেলেন একাধারে শিক্ষাবিদ, সঙ্গীতজ্ঞ ও রাজনীতিবিদ কৃষ্ণা বসু (Krishna Basu)। শুধু তাই নয়, যাদবপুর কেন্দ্র থেকে তিনবার সাংসদ হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। রাজনীতিবিদ, শিক্ষাবিদ চাড়াও তিনি ছিলেন একজন কবিও। তাঁর প্রয়াণে স্বভাবশতই শোকের ছায়া নেমে এসেছে সাহিত্যমহল ও রাজনৈতিক মহলে। শনিবার প্রাক্তন সাংসদ কৃষ্ণা বসুর জীবনাবসানে শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

এদিন বাইপাশের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। হৃদরোগের সমস্যার (Cardiac Problem) কারণে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৯ বছর। এলগিন রোডের বাসভবনে তাঁর মৃতদেহ আনা হয়েছে। এরপর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে নেতাজি ভবনে। সেখানে যাবেন মুখ্যমন্ত্রী ও। এদিন বিকেলে কেওড়াতলা মহাশ্মশানে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় শোকবার্তা লিখে একটি পোস্টও করেছেন তিনি। তাতে তিনি লিখেছেন, ‘প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ কৃষ্ণা বসুর মৃত্যুর খবরে আমি শোকাহত ও মর্মাহত। নেতাজির পরিবারের সদস্য হয়ে তিনি ছিলেন, শ্রদ্ধেয় সমাজ সংস্কারক, প্রখ্যাত কবি ও সাহসী শিক্ষাবিদ। ভারতীয় সমাজ ও বাংলার সংস্কৃতিতে তাঁর অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে।’ আরও পড়ুন: Krishna Basu Died: শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন শিক্ষাবিদ ও রাজনীতিক কৃষ্ণা বসু

মমতা বন্দোপাধ্যায় ছাড়াও কৃষ্ণা বসুর জীবনাবসানে বাকরুদ্ধ নোবেলজয়ী অমর্ত্য সেন (Amartya Sen) ও সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়। অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনের কথায়, 'তাঁর কাছ থেকে সমাজনীতি, সভ্যতা, ভারতীয় ঐতিহ্য বিষয়ে অনেককিছু শিখেছি'। তাঁর মৃত্যুতে শোকজ্ঞাপন করেছেন সৌগত রায়, ফিরহাদ হাকিম প্রমুখরা।