Jagdeep Dhankhar: রাজ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্তকারীর সংখ্যা কী ৪০ হাজারের কাছাকাছি? রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের টুইটে বাড়ছে জল্পনা
Coronavirus (Photo: PTI)

কলকাতা, ১ জুন: করোনা (Coronavirus) আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে রাজ্যে। সমস্ত রেকর্ড ভেঙে রবিবার অর্থাৎ ৩১ মে মাত্র ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩৫১। ভিন রাজ্য থেকে রাজ্যে ফেরা পরিযায়ী শ্রমিকদেরই (Migrant Workers) দায়ী করা হচ্ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধিতে। কিন্তু আদৌ কী তাই? করোনা আক্রান্তকারীর সংখ্যা বৃদ্ধি নিয়ে আরও একবার রাজ্য সরকারকেই কাঠগড়ায় তুললেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (Governor West Bengal Jagdeep Dhankhar)। করোনা আক্রান্তকারীর সঠিক তথ্য প্রাথমিকভাবে চেপে যাওয়ার জেরেই বাড়ছে করোনা আক্রান্তকারীর সংখ্যা বলে দাবি করলেন রাজ্যপাল।

রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় পরপর তিনটি টুইট করেন। প্রথম টুইটে তিনি দাবি করেছেন, "ঠিক কতগুলো পরীক্ষার রিপোর্ট এখনও প্রকাশিত হয়নি সেই ব্যাপারে ডেরেক ও ব্রায়ান যদি একটু আলোকপাত করেন। কারণ তিনি সোশ্যাল মিডিয়াতে তৃণমূলের মুখপাত্র। আমি মুখ্যসচিবকে জানিয়েছি যে এই সংখ্যাটি হয়তো ৪০,০০০ এর থেকেও কিছু বেশি, যা যথেষ্ঠই উদ্বেগজনক বিষয়।"

করোনা-পরীক্ষার পর যদি সেই পরীক্ষার রিপোর্ট আসতে দেরি হয়। তাহলে করোনা পরীক্ষার উদ্দেশ্যই সফল হবেনা। এমনটাই দাবি করেন রাজ্যপাল। পাশাপাশি রাজ্যে 'করোনাভাইরাসে আক্রান্তকারীর সংখ্যা তথ্যবিকৃতির কারণেই ক্রমশ বাড়ছে', টুইট করে একথা দাবি করেন জগদীপ ধনখড়। 'তথ্যগোপন করে কোনও কঠিন পরিস্থিতির মোকাবিলা যে করা যায়না,' সেকথাও স্পষ্ট করে জানিয়ে দেন রাজ্যপাল। কারণ 'সঠিক তথ্য মানুষের কাছে পৌঁছলে মানুষ আগেভাগে সচেতন হতে পারতেন', এতে 'করোনা আক্রান্তকারীর সংখ্যা কিছুটা হলেও হ্রাস টানা সম্ভব হত' বলে জানালেন জগদীপ ধনখড়।