India is a Hindu Rashtra: ১০০ কোটি হিন্দু বসবাস করে, তাই ভারতকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ বললেন বিজেপি নেতা
বিজেপি সাংসদ রবি কিষাণ (Photo Credits: IANS)

নতুন দিল্লি, ৪ ডিসেম্বর: নাগরিকত্ব বিল পাস হতে না হতেই বিজেপি (BJP) নেতা রবি কিষাণ (Ravi Kishan) বললেন ভারত হিন্দু রাষ্ট্র (Hindu Rashtra)। যেহেতু এই দেশে ১০০ কোটি হিন্দু বসবাস করে। রবি কিষাণ উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুর লোকসভা কেন্দ্রের প্রতিনিধিত্ব করছেন সংসদে। প্রতিটি দেশের নিজস্ব সংস্কৃতি রয়েছে। সেই অনুযায়ী বিশ্বের বাজারে দেশটির পরিচিতি তৈরি হয়। সেই সংস্কৃতির উপরে ভিত্তি করেই ভারতকে বিশ্বে নতুন পরিচিতি দিতে চাইছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। যেখানে প্রতিটা মানুষ শান্তিতে বসবাস করে।

এদিন সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বিজেপি সাংসদ বলেন, “ভারতবর্ষে হিন্দুদের সংখ্যা ১০০ কোটি। স্বাভাবিকভাবেই ভারত একটি হিন্দু রাষ্ট্র। একই সঙ্গে সংসদে নাগরিকত্ব বিল পাসের প্রসঙ্গ উঠতেই মুসলিমদের টার্গেট করেন সাংসদ। বলেন, প্রত্যেকেরই একটা পরিচিতি রয়েছে।যদি নাগরিকত্ব বিল নিয়ে মুসলিমদের মাথা ব্যথা বেশি হয় তাহলে তাদের মনে রাখা উচিত ক্যালিক প্রধান দেশ আছে। আছে ইসলামী রাষ্ট্র। তাহলে ভারতে যখন ১০০ কোটি হিন্দু বসবাস করছে, তখন তা কেন হিন্দু রাষ্ট্র হবে না? ভারতেরও নিজস্ব পরিচিতি থাকা উচিত।” এদিকে সংসদে (Parliament) নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (Citizenship (Amendment) Bill) পেশে ছাড়পত্র দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা (Union Cabinet)। গত লোকসভার আগের মেয়াদে বিলটি পাস হয়নি। আগামী সপ্তাহেই সংসদে এই বিল পেশ করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে। আরও  পড়ুন-Citizenship Amendment Bill: সংসদে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পেশে ছাড়পত্র কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার

কী রয়েছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলে? ১৯৫৫ সালের সিটিজেনশিপ অ্যাক্ট সংশোধন করতেই ওই বিল আনা হচ্ছে। এই বিল অনুযায়ী পাকিস্তান, আফগানিস্তান, বাংলাদেশ থেকে আসা হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন, পার্সি ও খ্রিষ্টান ধর্মালম্বী মানুষরা এদেশে ৬ বছর থাকলেই নাগরিকত্ব পাবেন। আগে এই সময়সীমা ছিল ১২ বছর। নাগরিকপঞ্জীর মতো এই বিলের বিরোধিতা করেছে কংগ্রেস (Congress), তৃণমূল (TMC), সিপিএম (CPIM) সহ বেশ কয়েকটি বিরোধী রাজনৈতিক দল। তাদের দাবি, ধর্মের ভিত্তিতে কাউকে দেশের নাগরিকত্ব দেওয়া যায় না।