One Nation One Card Scheme: ১ অক্টোবর থেকে তামিলনাড়ুতে চালু হচ্ছে 'এক দেশ এক রেশন কার্ড' প্রকল্প
এক দেশ এক রেশন কার্ড প্রকল্প (Photo Credits: PTI)

চেন্নাই, ২৪ সেপ্টেম্বর: তামিলনাড়ুতে (Tamilnadu) 'এক দেশ এক রেশন কার্ড' ব্যবস্থা (One Nation One Card Scheme) চালু হচ্ছে ১ অক্টোবর থেকে। এই ব্যবস্থায় ভর্তুকিযুক্ত খাদ্যশস্যের অধিকারী কোটা পাওয়া যাবে। খবর অনুযায়ী, তামিলনাড়ু সরকার ১ অক্টোবর, ২০২০ থেকে এই ব্যবস্থা চালু করতে চলেছে। এক দেশ এক রেশন কার্ডের মাধ্যমে, একই রেশন কার্ড ব্যবহার করে অন্য রাজ্যেও ভর্তুকিযুক্ত খাদ্যশস্য রেশন দোকান থেকে কেনা যাবে। টাইমস অফ ইন্ডিয়ার রিপোর্ট অনুযায়ী, রাজ্যে প্রতিটি রেশন হোল্ডারদের বায়োমেট্রিক অথেনটিকেশনের পদ্ধতির প্রক্রিয়া চলছে।

রাজ্যের মন্ত্রীদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী এডাপ্পাদি কে পালানিস্বামীর উচ্চস্তরীয় বৈঠকের পরই বুধবার এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, অর্থ, কোঅপারেশন, খাদ্য এবং উপভোক্তা সুরক্ষা বিভাগের কর্মকর্তারা হাজির ছিলেন। তাঁরাই ঘোষণা করেন, এক দেশ এক রেশন কার্ডের প্রকল্প লাগা হবে ১ অক্টোবর থেকে। আরও পড়ুন, করোনা আক্রান্ত বারাবনির তৃণমূল বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়

এক দেশ এক রেশন কার্ড প্রকল্পের ব্যাপারে বিস্তারিত জানুন-

সরকার গত বছর জানিয়েছিল তারা তেলেঙ্গানা ও অন্ধ্র্প্রদেশের মধ্যে এবং মহারাষ্ট্র ও গুজরাটের মধ্যে আন্তঃরাজ্য বহনক্ষম রেশন কার্ডের পাইলট প্রকল্প চালু করবে- যা এক দেশ এক রেশন কার্ড প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত। যেহেতু রেশন কার্ড রাজ্য সরকার ইস্যু করে থাকে, ফলে স্বাভাবিকভাবেই খাদ্যশস্যের মাধ্যমে যাঁরা উপকৃত হবেন, তাঁদের সংশ্লিষ্ট রাজ্যের রেশন দোকান থেকেই রেশন সংগ্রহ করতে হবে।

যদি কেউ এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে যান, সেক্ষেত্রে তাঁকে দ্বিতীয় রাজ্যে গিয়ে ফের রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করতে হবে না। এ ছাড়াও আরও জটিলতা ছিল। যেমন, বিয়ের পর কোনও মহিলার বাপের বাড়ির রেশন কার্ড থেকে নাম সরিয়ে তা স্বামীর পরিবারের রেশন কার্ডে অন্তর্ভুক্ত করতে হয়।

এক রাজ্য এক রেশন কার্ড সারা দেশের রেশন ডেলিভারির মধ্যে ফাঁক পূরণের একটি চেষ্টা। কার্যত এই প্রকল্প দেশের মধ্যে পরিযায়ী শ্রমিকদের কথা মাথায় রেখে করা হয়েছে, যেহেতু কিছু মানুষ কাজের খোঁজে ও জীবনযাত্রার উচ্চতর মানের জন্য এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে যেতে থাকেন। ২০১১ সালের জনগণনা রিপোর্ট অনুসারে ভিন রাজ্যে পরিযায়ীর সংখ্যা ৪.১ কোটি এবং কাজের খোঁজে রাজ্যের মধ্যে বা ভিন রাজ্যে গিয়েছেন ১.৪ কোটি মানুষ।