কাশ্মীর প্রসঙ্গে পাক প্রধানমন্ত্রীকে ফোন সৌদি যুবরাজের, কী বললেন ইমরান খান?
সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সলমন(File Photo)

ইসলামাবাদ, ২০ আগস্ট: সোমবার রাতটি ছিল ভারত পাকিস্তান দুই দেশের রাষ্ট্র প্রধানের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বিলুপ্তির পর সোমবার রাতেই প্রথম মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে টেলিফোনিক বার্তালাপ করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ঠিক একইভাবে ১৫ দিনের মাথায় কাশ্মীর (Kashmir) সমস্যা নিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের (Imran Khan) সঙ্গে কথা বললেন সৌদির যুবরাজ মহম্মদ বিন সলমন (Saudi Crown Prince Mohammad bin Salman)। ভারত জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা (Article 370) তুলে নিতেই প্রতিরোধ গড়তে উঠেপড়ে লেগেছিল পাকিস্তান। এই সময় বিভিন্ন দেশের সঙ্গে কথাবলে জনমত গঠন করার চেষ্টাও করেন ইমরান খান। ৫ আগস্ট ৩৭০ ধারা রদ হয়, আর সাত তারিখেই সৌদির যুবরাজকে ফোন করে কাশ্মীর পরিস্থিতির ব্যাখ্যা করেন ইমরান।

এরপর কেটেছে ১৫দিন, চিন থেকে শুরু করে জাতিপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদ। কেউই ভারতের বিরুদ্ধে ইমরানের রাগকে খুব একটা পাত্তা দেয়নি। উল্টে কাশ্মীর সমস্যা মিটিয়ে ফেলতে নয়াদিল্লির সঙ্গে আলোচনায় বসতে বলা হয়েছে ইসলামাবাদকে। ইচ্ছে না হলেও এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতায় মুখ খোলেননি ইমরান। গতকাল রাতে নরেন্দ্র মোদির (PM Narendra Modi) সঙ্গে বার্তালাপের পর ইমরানখে ফোন করে বেশ ধমক দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (US President Dnald Trump)। কাশ্মীর নিয়ে যেভাবে হিংসা ছড়াচ্ছে পাকিস্তান এটি যে অন্যায্য কাজ, তা মনে করিয়ে দিতে ছাড়েননি ট্রাম্প। এরপরেই আরব থেকে দ্বিতীয় ফোন কলটি পেলেন ইমরান খান। সৌদির যুবরাজ মহম্মদ বিন সলমন তাঁকে ফোন করেছেন, বিষয় অবশ্যই এক পক্ষকাল আগে হওয়া আলোচ্য কাশ্মীর। এদিন বর্তমান কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে পাক প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিশদে জানতে চান যুবরাজ।আরও পড়ুন-কাশ্মীরকে সমর্থনে ভারত বিরোধী মন্তব্যের জের, ২০০টি পাকিস্তানি অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড করল টুইটার

পাকিস্তানি সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ইমরান খান যুবরাজকে জম্মু ও কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে অনেক কথা বলেন। বর্তমানে যে ভারতীয় কাশ্মীরের পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হয়েছে তানিয়েও দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে আলোচনা হয়।