Mahishadal Rath Yatra : পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদল রাজবাড়ির রথযাত্রা বন্ধ
মহিষাদলের রথযাত্রা (Photo: Wikimedia Commons)

মহিষাদল, ২১ জুন: মাহেশের পর এবার পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদল রাজবাড়ির রথযাত্রা (Mahishadal Rath Yatra) বন্ধ থাকছে এ বছর। করোনা (Coronavirus) পরিস্থিতিতেই বন্ধ রাখা হচ্ছে রথ উৎসব। ২৪৩ বছরের উৎসবে এই দ্বিতীয়বার জগন্নাথের রথ টানা হচ্ছে না। ৮৮ বছর আগে একবার রথযাত্রা বন্ধ রাখা হয়। তবে রথের চাকা না ঘুরলে রাজ পরিবারের পক্ষ থেকে পালন করা হবে মাঙ্গলিক অনুষ্ঠান।

জানা যায়, রাজা আনন্দলাল উপাধ‍্যায়ের স্ত্রী রানি জানকিদেবী মহিষাদলের রথের সূচনা করেছিলেন। এরপর ১৮০৪ সালে রানির মৃত্যুর পর মতিলাল পাঁড়ে মহিষাদলের রাজত্ব পান। সেই সময় তিনি একটি সুন্দর সতেরো চূড়োর রথ তৈরি করান। পরে ১৮৫২ সালে ততকালীন রাজা লছমন প্রসাদ গর্গ বাহাদূর ওই সতেরো চূড়ো রথের সংস্কার করার জন্য কলকাতা থেকে কয়েকজন কারিগরকে অনিয়েছিলেন। সে সময় প্রায় চার হাজার টাকা খরচ করে তিনি রথের চারধারে চারটি মূর্তি বসিয়েছিলেন। ১৯১২ সালে মাধব চন্দ্র দে রথের সামনের কাঠের ঘোড়া দুটি তৈরি করেছিলেন। তবে রথের মধ্যে এখন সেকালের তৈরি ঘোড়া থাকলেও এখন আর সেকালের সেই সতেরো চূড়োর রথ আর নেই। এখন মহিষাদলের রথ তেরো চূড়োয় পরিণত হয়েছে। পুরী,মাহেশের পরই ঐতিহ‍্যের দিক থেকে উঠে আসে মহিষাদলের রথের কথা। আরও পড়ুন: Liquor Home Delivery In WB: পশ্চিমবঙ্গে মদের হোম ডেলিভারি করবে অ্যামাজন ও বিগবাস্কেট

এর আগে শ্রীরামপুরের মাহেশের রথ, মালদার রথ ও কলকাতার ইসকনের রথযাত্রা এই বছরের মতো বন্ধ রাখা হয়েছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে। রাজ্যে মন্দির, মসজিদ সহ ধর্মীয় স্থান খোলার অনুমতি দেওয়া হলেও জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে। এদিকে এ বছর সুপ্রিম কোর্ট পুরীর রথযাত্রা না করার নির্দেশ দিয়েছে। যদিও এনিয়ে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জমা পড়েছে।