Cyclone Amphan:
জগদীপ ধনখর (Picture Credits: Facebook)

কলকাতা, ২৪ মে: বিদ্যুৎ ফেরানোর দাবিতে আজও কলকাতা সহ রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বিক্ষোভ অব্যাহত। এর মধ্যে গাছ কাটা ও রাস্তা পরিষ্কারের কাজে নেমেছে সেনাবাহিনী (Indian Army)। গতকালই সেনা ডাকে রাজ্য সরকার। যদিও এনিয়েও রাজ্য সরকারকে বিঁধলেন রাজ্যপাল জগদীন ধনখর (Jagdeep Dhankhar)। তাঁর বক্তব্য, তিন দিন আগেই সেনাকে ডাকা উচিত ছিল। রাজ্যপাল লেখেন, "আমাদের সেনাবাহিনী স্বল্প সময়ে দৃষ্টান্তমূলক পদ্ধতিতে কাজ করেছে এবং পুনরুদ্ধারের কাজ করছে। দুর্ভোগে পড়া মানুষদের জন্য একটি বড় স্বস্তির। তবে প্রথম দিনই সেনা ডাকা উচিত ছিল মুখ্যমন্ত্রীর (CM Mamata Banerjee), তিনদিন পর নয়। সেনাবাহিনী আম্ফান আঘাত করার আগেই ত্রাণের কাজের জন্য সম্পূর্ণ প্রস্তুতি নিয়েছিল।"

আরেকটি টুইটে তিনি লেখেন, "কয়েকদিন ধরে ন্যূনতম পরিষেবার অভাবে মানুষের অবর্ণনীয় দুর্দশা দেখে আমি ব্যথিত। সরকার ও সংস্থাগুলি অবিলম্বে সমস্ত শক্তি দিয়ে পরিষেবা চালু করার চেষ্টা করুক।" সাধারণ মানুষের কাছেও তিনি সংযত থাকার আবেদন জানিয়েছেন। পাশাপাশি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে তাঁর ট্যুইট, রাজ্যপালের সঙ্গে যোগাযোগ রাখলে সেনার সাহায্য আরও তিনদিন আগে নেওয়া যেত। আরও পড়ুন: Vegetable Price Hikes: আম্ফান তান্ডবের জেরে ক্ষতিগ্রস্ত চাষের জমি; বাড়ল সব্জির দাম

এদিকে শনিবার রাতের পর রবিবার সকাল হতেই ফের কাজে নেমেছে সেনা। কলকাতাকে সচল করতে গতকাল থেকেই রাজপথে নেমেছে সেনা। যত দ্রুত সম্ভব গাছ কেটে রাস্তা পরিষ্কার করতে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কাজ করছে সেনা। নিয়ে আসা হয়েছে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম।