Pakistan Cricket Central Contract: তিন বছরের সঙ্গে বর্ধিত মাসিক আয়, পিসিবির রাজস্বের একটি অংশ; জানুন পাকিস্তান ক্রিকেটারদের নয়া চুক্তি
Shaheen Shah Afridi, Babar Azam & Mohammad Rizwan (Photo Credit: King Babar Azam Army/ Twitter)

বেশ কয়েক মাস ধরে চলা অচলাবস্থা ও অনিশ্চয়তার অবসান ঘটিয়ে পিসিবি ও পাকিস্তানের পুরুষ দলের ক্রিকেটাররা কেন্দ্রীয় চুক্তিতে যুগান্তকারী পরিবর্তনে পৌঁছেছেন। পাকিস্তানে প্রথমবারের মতো ১২ মাসের পরিবর্তে তিন বছরের চুক্তি করা হয়েছে। শুধু তাই নয় সেখানে খেলোয়াড়দের আয়ের উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি হয়েছে পাশাপাশি আইসিসি থেকে পিসিবির আয়ের একটি নির্দিষ্ট অংশও খেলোয়াড়রা পাবে বলে নিশ্চিত করা হবে। গত ৩০ জুন সবচেয়ে সাম্প্রতিক কেন্দ্রীয় চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার প্রায় তিন মাস পর এই চুক্তি হয়েছে। এরপর থেকে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা কোনো বেতন বা আর্থিক ক্ষতিপূরণ না পেয়েই খেলছিলেন। পিসিবি খেলোয়াড়দের নতুন চুক্তি না হওয়া পর্যন্ত পুরনো চুক্তির অর্থ প্রদান প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখার সুযোগ প্রদান করে কিন্তু খেলোয়াড়রা তা প্রত্যাখ্যান করে। Contract Issue Resolved, Pakistan Cricket: অবশেষে মিটল কেন্দ্রীয় চুক্তি নিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেট-খেলোয়াড়দের মতবিরোধ

গত কয়েক সপ্তাহের বেশিরভাগ সময় ধরে খেলোয়াড় ও বোর্ডের টানাপড়েনের পর তাঁদের সাম্প্রতিক ইতিহাসে যে চুক্তি হয়েছে তা খেলোয়াড়দের জন্য অনেক বেশি লাভজনক। 'এ' ক্যাটাগরির খেলোয়াড়রা পান ৪৫ লক্ষ পাকিস্তানি রুপি যা আগের বছরের চেয়ে চারগুণ বেশি। পিসিবি প্রথমে 'এ' ক্যাটাগরির খেলোয়াড়দের পিএসএলের বাইরে একটি মাত্র টি-টোয়েন্টি লীগ খেলার প্রস্তাব দিয়েছিল, তবে কেন্দ্রীয়ভাবে চুক্তিবদ্ধ সকল খেলোয়াড়কে চুক্তির ক্যাটাগরি নির্বিশেষে দুটি অতিরিক্ত লীগ খেলার অনুমতি দিতে সম্মত হয়েছে।

তবে সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হল রাজস্ব ভাগাভাগি, খেলোয়াড়রা পিসিবিকে আইসিসি বার্ষিক যে রাজস্ব প্রদান করে তার এক শতাংশ দাবি করেছে যা বোর্ড প্রথমে দিতে অনিচ্ছুক ছিল। শেষ পর্যন্ত ৩ শতাংশ রাজস্ব ভাগ দেওয়া নিয়ে খেলোয়াড়দের সঙ্গে তাঁরা একমত হয়। আর্থিক অঙ্কে আইসিসির রাজস্ব ভাগ হিসেবে পিসিবি আগামী বছর থেকে ৩ কোটি ৪০ লক্ষ ডলার আয় করতে যাচ্ছে। এছাড়া ম্যাচ ফি ছাড়াও খেলোয়াড়দের অতিরিক্ত অর্থ প্রদান করা হবে, যেখানে টেস্টে ৫০%, ওয়ানডেতে এবং টি-টোয়েন্টিতে ১২.৫% অতিরিক্ত বৃদ্ধি পাবে।