Contract Issue Resolved, Pakistan Cricket: অবশেষে মিটল কেন্দ্রীয় চুক্তি নিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেট-খেলোয়াড়দের মতবিরোধ
PCB and Players Contract Issue Resolved (Photo Credit: Cricket Junoon/ X)

লাহোর: পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) এবং পুরুষ ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়রা ক্রিকেটারদের কেন্দ্রীয় চুক্তি ঘিরে তাদের চলমান বিরোধের অবসান ঘটিয়ে অবশেষে একমত হয়েছেন। যদিও বোর্ড এখনও এই বিষয়ে কিছু জানায়নি, তবে জানা গিয়েছে যে ক্রিকেটাররা এবং পিসিবি তাদের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে কিছু ধারা নিয়ে আপত্তি জানানোর পরই তাদের মধ্যে মতবিরোধ তৈরি হয়েছিল। Geo TV- এর খবর অনুসারে, প্রধান নির্বাচক ইনজামাম-উল-হক এই সমস্যার সমাধানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। সূত্রের খবর, খুব শীঘ্রই নতুন কেন্দ্রীয় চুক্তি ঘোষণা করতে চলেছে বোর্ড। এর আগে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম বলেন, 'চুক্তির বিষয়ে এখনো আলোচনা চলছে। তবে আমরা আশাবাদী পিসিবি সব সময় আমাদের স্বার্থের কথা বলে।' Pakistan Cricket Team: কাটল ভিসা জট, বিশ্বকাপ খেলতে বুধবারই ভারতে আসছেন বাবর আজমরা

জানা যায়, আগের কেন্দ্রীয় চুক্তির মেয়াদ গত ৩০ জুন শেষ হয়ে যাওয়ায় এক মাসের জন্য মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। নতুন চুক্তির আওতায় ক্রিকেটারদের বকেয়া পাওনা পরিশোধের বিষয়টি শর্ত অনুযায়ী নিষ্পত্তি করা হবে। এর আগে কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে লাল-সাদা বলের ক্যাটাগরি শেষ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল পিসিবি। নতুন চুক্তিতে এ, বি, সি ও ডি নামে চারটি ভিন্ন ক্যাটাগরিতে ক্রিকেটারদের আনা হবে। কেন্দ্রীয় চুক্তিতে গত বছর যেখানে ৩৩ জন ক্রিকেটার ছিল, সেই সংখ্যা কমিয়ে ২৫ বা ২৬-এ নামিয়ে আনার সিদ্ধান্তও নিয়েছে বোর্ড। এছাড়াও, খেলোয়াড়দের নতুন চুক্তিতে তাদের ম্যাচ ফি প্রায় ৫০% বৃদ্ধির একটি ঐতিহাসিক বৃদ্ধি পেতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে।

অধিনায়ক বাবর আজম, মহম্মদ রিজওয়ান ও শাহিন শাহ আফ্রিদি 'এ' ক্যাটাগরিতে রয়েছেন এবং রিটেইনার হিসেবে মাসে ৪৫ লক্ষ পাকিস্তানি রুপি আয় করেন, যা গত বছরের প্রস্তাবের চেয়ে প্রায় চারগুণ বেশি। 'বি' ক্যাটাগরির ক্রিকেটাররা পাবেন প্রায় ৩০ লক্ষ পাকিস্তানি রুপি। 'সি' ও 'ডি' ক্যাটাগরির ক্রিকেটাররা পাবেন ০.৭৫-১.৫ লক্ষ পাকিস্তানি রুপি। উল্লেখ্য, ২০২৩ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে অংশ নিতে বুধবার ভোরে ভারতের উদ্দেশে রওনা হয়েছে পাকিস্তানের পুরুষ দল। রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে এই মেগা ইভেন্ট। সব দলই একে অপরের বিপক্ষে খেলবে এবং মোট ৪৫টি লিগ ম্যাচ আয়োজিত হবে।