Uttarakhand Forest Fire: সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ভয়ঙ্কর দাবানলের ছবিগুলি ভুয়ো, আগুনের গ্রাসে ক্ষতি উত্তরাখণ্ডের ১১১ হেক্টর বনাঞ্চল
উত্তরাখণ্ড বনসরক্ষণ কেন্দ্রের প্রধান জয় রাজ (Photo Credits: ANI)

দেরাদুন, ২৮ মে: উত্তরাখণ্ডে ভয়ঙ্কর দাবানলের (Uttarakhand Forest Fire) যে ছবিগুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হচ্ছে সেগুলি বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে বলে জানান বনসরক্ষণ কেন্দ্রের প্রধান জয় রাজ। গত পাঁচদিন ধরে দাবানল দাউ দাউ করে জ্বলছে একাধিক বনাঞ্চল খবরটি সত্যি। তবে দাবানলের যে ছবিগুলি নেটিজেনরা শেয়ার করছেন সেগুলি উত্তরাখণ্ডের নয় বলেই জানানো হয়। কানাডা, আমেরিকা কিংবা অস্ট্রেলিয়ায় যে দাবানল ঘটেছে সেই ছবিগুলিই উত্তরাখণ্ডের বলেই চালাচ্ছেন অনেকে। যারা এই ভুয়ো খবর ছড়াচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানায় পুলিশ।

তবে উত্তরাখণ্ডে বন দাবানল সম্পর্কে বিশদ বিবরণ দিয়ে জয় রাজ জানান, এখনও পর্যন্ত দাবানলে ১১১ হেক্টর বনাঞ্চল পুড়ে গেছে। যার ফলে ৩ লক্ষের অধিক লোকসান হয়েছে। তিনি আরও বলেন, এই আগুন ঘাস এবং গুল্মকে প্রভাবিত করে এবং বর্ষায় সবকিছু আবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে। বুধবার মুখ্যমন্ত্রী ত্রিভেন্দ্র সিং রাওয়াতও বলেন, উত্তরাখণ্ডের বনাঞ্চলে আগুন লেগেছে বলে দাবি করার জন্য চিলি ও চিনের পুরানো দাবানলের ছবিগুলি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে প্রচার করা হচ্ছে।" ২০১৬ এবং ২০১৯-র এই ছবি ছড়িয়ে দেওয়া একটি বিভ্রান্তিমূলক প্রচার। এবছর যে দাবানল হয়েছে তা আগের বছরের তুলনায় কম।" আরও পড়ুন, পুলওয়ামায় উদ্ধার বিস্ফোরক বোঝাই গাড়ি, বানচাল গাড়িবোমা বিস্ফোরণের ছক

ডিরেক্টর জেনারেল (আইনশৃঙ্খলা) অশোক কুমার জানান, উত্তরাখণ্ডের বনাঞ্চলে আগুন লাগার গুজব যারা ছড়িয়েছেন এমন লোকদের বিরুদ্ধে একটি এফআইআর নথিভুক্ত করা হয়েছে। যারা এই বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে দেবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার সতর্ক করেন।