Russia-Ukraine War: বোমাবর্ষণের মাঝে ঝুঁকি নিয়ে ভারতীয় দূতাবাসই তাঁদের ফেরাল, জানালেন ইউক্রেনে আটকে থাকা পড়ুয়া
Indian Student (Photo Credit: ANI/Twitter)

দিল্লি, ১১ মার্চ:  রাশিয়ার (Russia) বোমাবর্ষণের জেরে ইউক্রেনে আটকে ছিলেন বেশ কয়েকদিন। তবে ভারত সরকার প্রথম থেকেই তাঁদের উদ্ধারের আশ্বাস দিয়েছিল। সুমি থেকে যাতে আটকে পড়া পড়ুয়ারা (Indian Student) বাস, ট্রেনে করে পোলান্ড (Poland)  বা হাঙ্গেরি সীমান্তে পৌঁছতে পারে, সে ব্যাপারে উদ্যোগী ছিল বিদেশ মন্ত্রক। ফলে বিদেশ মন্ত্রক সব সময় তাঁদের সঙ্গে যোগাযাগ করে সুমি থেকে উদ্ধার করে। তাঁদের যখন সুমি শহর থেকে উদ্ধার করা হয়, তারপর আর কোনও  পড়ুয়া ইউক্রেনে (Ukraine) আটকে নেই বলে জানান প্রেরণা নামে এক তরুণী। প্রেরণা জানান, তাঁরাই ছিলেন শেষ পডুয়া, যাঁদের যুদ্ধ বিধ্বস্ত সুমি থেকে উদ্ধার করে ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রক। যুদ্ধের মাঝে যতদিন তাঁরা ইউক্রেনে আটকে ছিলেন, ততদিন বোমাবর্ষণ এবং মিসাইল হামলা ছাড়া অন্য কিছুর শব্দ শুনতে পাননি বলে জানান প্রেরণা।

 

প্রসঙ্গত সুমি থেকে ভারতীয় পড়ুয়াদের উদ্ধারের পর  থেকেই সেখানে এক নাগাড়ে বোমাবর্ষণ শুরু করে রাশিয়া। এমনকী, সুমির পর মারিউপলের শিশু হাসপাতালেও রুশ সেনা হামলা চালায় বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন:  Elon Musk: সারোগেসি হাতিয়ার, এলোন মাস্ক, গ্রিমসের জীবনে দ্বিতীয় সন্তান

মারিউপলের (Mriupol)  শিশু হাসপাতালে রাশিয়ার হামলার ঘটনাকে যুদ্ধ অপরাধ বলে তীব্র আক্রমণ করে ইউক্রেন। যা নিয়ে গোটা বিশ্ব তোলপাড় হয়ে যায়। মারিউপলের ঘটনায় আন্তর্জাতিক চাপে শেষ পর্যন্ত ওই ঘটনার তদন্ত করা হবে বলে জানায় ক্রেমিলন।